বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জিংক ধানের বৈশিষ্ঠ ও উপকারিতা শীর্ষক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গতকাল মঙ্গলবার আরডিআরএস বাংলাদেশ দিনাজপুর ইউনিট এর আয়োজনে বোচাগঞ্জ উপজেলার ছাতইল ইউনিয়নের নাফানগরে কৃষকদের নিয়ে জিংক ধানের বৈশিষ্ঠ ও জিংক এর উপকারিতা বিষয়ে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
ছাতইল ইউনিয়ন ফেডারেশনের সভাপতি রবিউল গণি, ক্যাশিয়ার শহীদুল হক, সেক্রেটারী, আব্দুর বাছেদ, নাফানগর ফেডারেশনের সভাপতি আব্দুল মালেক জিংক ধানের স্বল্প মেয়াদী জাতের ব্রিধান-৬২’র বৈশিষ্ঠ’র বর্ণনা করে বলেন, এর জীবনকাল ১০০ দিন। ডিগ পাতা খাড়া ও গাড় সবুজ রংগের ১০০০ পুষ্ট ধানের ওজন প্রায় ২৪ গ্রাম। আরডিআরএস বাংলাদেশ দিনাজপুর ইউনিটের কৃষি কর্মকর্তা সৈয়দা নাজমা পরভীন বলেন, ডায়রিয়া, নিউমনিয়া এবং মেলেরিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের জিংক সেবনে এ রোগের তীব্রতা হ্রাস পায়। এছাড়াও মানব দেহের বহুবিদ শারীর বৃত্তীয় প্রক্রীয়ায় জিংক একটি অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি উপদান হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। ভাতের মধ্যে জিংক এর পরিমাণ অল্প থাকায় বায়ফটি ফিকেশন এর মাধ্যমে জিংক ধান উদ্ভাবন করা হয়েছে। যা আমাদের জিংকের অভাব জনিত অপুষ্টি পুরণে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।

Spread the love