রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জিয়ার মাজারে বিএনপি নেত্রীদের চুলোচুলি

bnpবিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে মহিলা দলের নেত্রীদের মধ্যে চুলোচুলি ও মারামারির ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা মহানগর বিএনপির নতুন আহ্বায়ক কমিটিার সাথে জিয়ার কবরে ফুল দেয়ার সময় দাঁড়ানো নিয়ে সাবেক সংসদ সদস্য নিলোফার চৌধুরী মনির সাথে ছাত্রদলের সহসাংগঠনিক সম্পাদক নাসিমা আখতার কেয়ার কথা কাটাকাটি শুরু হয়। তারই এক পর্যায়ে সাবেক এমিপ মনির ওপর চড়াও হয়ে কেয়া তার চুল ধরে টানতে থাকে এবং ঘুষিও মারেন। একই সময়ে মহিলা দলের সভানেত্রী নুরী আরা সাফাকেও অন্য এক নারী নেতা ঠেলা দিয়ে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন। মহিলা দলের অন্যান্য সদস্যের সামনে এ অপ্রিতীকর ঘটনা ঘটলেও নিজেদের জায়গা ঠিক রাখতে গিয়ে তাদের নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করতেই দেখা গেছে।
এদিকে দাঁড়ানো নিয়ে অপ্রিতীকর ঘটনা ঘটেছে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের মধ্যেও। ফুল দেয়ার জন্য ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের এক পাশে দাঁড়ান স্থায়ী কমিটির সদস্যগয়েশ্বর রায় আর অন্য পাশে দাঁড়ান মির্জা আব্বাস ও আবদুল আউয়াল মিন্টু। এ সময় পেছনে দাঁড়ানো নতুন কমিটির সদস্য সচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল গয়েশ্বরকে ঠেলে ফখরুলের পাশে দাঁড়ালে সৃষ্টি হয় উত্তেজনা। রাগান্বিত হয়ে গয়েশ্বর চলে যেতে চান। ক্ষুব্ধ কণ্ঠে সোহেলকে ধমকও দেন তিনি। এ সময় ফখরুল ও মির্জা আব্বাস বুঝিয়ে শুনিয়ে গয়েশ্বরের চলে যাওয়া ঠেকান।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে নতুন কমিটি গঠনের ৬দিন পর আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার নতুন নেতৃত্বকে নিয়ে শেরে বাংলা নগরে জিয়ার মাজারে ফুল দিতে যান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সকাল ১১টার এ কর্মসূচিতে অংশ নিতে আগে থেকে মিরপুর, পল্লবী, কাফরুল, শাহজাহানপুর, বাসাবোসহ বিভিন্ন থানা-ওয়ার্ড থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে চন্দ্রিমা উদ্যানে জড়ো হতে বিএনপির নেতা কর্মীরা।
এ সময় নতুন কমিটির নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল আউয়াল মিন্টু, কাজী আবুল বাশার, আবু সাঈদ খান খোকন, সদস্য বরকত উল্লাহ বুলু, এস এ খালেক, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নাসির উদ্দিন অসীম, আবদুল মজিদ, শামসুল হুদা, সাজ্জাদ জহির, ইউনুস মৃধা, আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, আলী আজগর মাতবর প্রমুখ।
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ, রুহুল কবির রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, শামীমুর রহমান শামীম, শিরিন সুলতানা, হেলেন জেরিন খানও উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত ধাক্কাধাক্কি- ঠেলাঠেলির কারণে প্রথম দফায় সাংবাদিকদের সঙ্গে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব কথা বলতে পারেননি। ক্ষুব্ধ হয়ে নেতারা তখন লেকের পাশে গিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ফখরুল।

 

 

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email