শুক্রবার ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে পলিথিন ঢাকা বীজতলা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

রবিউল এহসান রিপন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঘন কুয়াশা ও শৈত্য প্রবাহের কারণে ঠাকুরগাঁওয়ে বেশির ভাগ ইরি-বোরোর বীজতলা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। প্রতি বছর ঘন কুয়াশায় ইরি-বোরো ধানের বীজতলা বিবর্ণ হয়ে নষ্ট হয়ে যায়।

 

এ অবস্থা থেকে উত্তোরনে ঠাকুরগাঁওয়ের কৃষকেরা এখন পলিথিন ঢাকা দিয়ে বীজতলা তৈরি করছে। কম সময়ে স্বাস্থ্যবান ও ভালো বীজ পাওয়ায় ইতোমধ্যে এ পদ্ধতিটি চাষিদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

 

কৃষি সম্প্রাসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর জেলায় চলতি মৌসুমে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬১ হাজার ৮৫৯ হেক্টর জমিতে। গত মৌসুমে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ৬৭ হাজার ৫৫৪ হেক্টর জমিতে। আর আবাদ হয়েছিল ৭০ হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে।

 

Thakurgaon-2ডিসেম্বর মাসের প্রথম থেকে কৃষকেরা বাড়ির পার্শ্বে খাল বিল ডোবা ও নদীর ধারে বীজতলা তৈরি করে থাকে। কিন্তু প্রতি বছর ঘন কুয়াশা ও শৈত্যপ্রবাহের কারণে অনেক বীজতলা নষ্ট হয়ে যায়। এ সময় কৃষকেরা পরে বেকায়দায়।

 

তখন বাইরে থেকে বীজ সংগ্রহ করতে হয়। এ অবস্থায় পলিথিন ঢাকা দিয়ে উঁচু জমিতে বীজতলা তৈরির পরামর্শ দিয়ে আসছে কৃষি বিভাগ।

 

ইতোমধ্যে এ জেলায় যেসব বীজতলা তৈরি করা হয়েছে তার অর্ধেকই পলিথিন দিয়ে ঢাকা। বীজ গাজার পর রোদ্রজ্জল দিনে দিনের বেলায় পলিথিনের ঢাকা তুলে ফেলতে হয়। মাঝে মাঝে পানি সেচ দিতে হয়। পলিথিন ঢাকা দিয়ে তৈরি বীজতলা শৈত্যপ্রবাহ ও কুয়াশায় নষ্ট হয়না এবং সময়মত ক্ষেতে লাগানো যায়। এ বীজ হতে ধানের উৎপাদনও তুলনামূলক ভাবে বেশি। তাই এ পদ্ধতি কৃষকদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

 

সদর উপজেলা ভূল্লী বড় বালিয়া এলাকার কৃষক রমজান আলী জানান, গত ৩ বছর ধরে পলিথিন দিয়ে বীজতলা তৈরি করা হচ্ছে। কারণ শীতে বীজতলা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তাই বীজ তলা রক্ষার জন্য পলিথিন ব্যবহার করা হচ্ছে। একই কথা জানালেন ঐ এলাকার কৃষক আল মামুন।

Spread the love