রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে বেঁচে আছেন ১৮ শতকে জন্ম নেয়া দুজন

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল এবং বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে এখনও বেঁচে আছেন আঠারো শতকে জন্ম নেয়া দুইজন মানুষ। এদের মধ্যে রানীশংকৈলের নজর মোহাম্মদের জন্ম ১৮৯৫ সালে, বালিয়াডাঙ্গীর কেশিরন বেওয়ার ১৮৯৮ সালে। কেশিরন চলার শক্তি হারালেও নজর মোহাম্মদ বেশ শক্ত সামর্থ। তার শরীরে নেই তেমন কোনো সমস্যা।
বিশ শতকের প্রথম দিককার কথা এখনও মনে করতে পারেন রানীশংকৈল করনাইট গ্রামের নজর মোহাম্মদ। সেই দিনগুলোর কথা শুনতে প্রায়ই মানুষ যায় তার কাছে।
উনিশশো এক সালে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হরিণমারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন নজর মোহাম্মদ। তখনকার দিনে পড়ালেখা কতো কঠিন ছিলো সেটা এখনও বলেন তিনি।
এখনও দৃষ্টিশক্তি বেশ প্রখর, বই পড়া তার নেশা। তবে শ্রবণশক্তি দুর্বল হয়ে গেছে অনেক। নজর মোহাম্মদ  বিয়ে করেছেন পাঁচটি, ছেলে তিনজন। ষষ্ঠ প্রজন্ম দেখছেন তিনি। তার নাতি-নাতনিরও নাতি হয়েছে।
বালিয়াডাঙ্গীর কেশিরন বেওয়া নজর মোহাম্মদের চেয়ে তিন বছরের ছোটো। বয়সের ভারে চলাফেরা করতে পারেন না, হারিয়েছেন কথা বলার শক্তিও। তার বড় মেয়ে সালেহা বেগমের ছেলে মেয়েরাও এখন বৃদ্ধ প্রায়।
সুষম, পরিমিত খাবার এবং নিয়মানুবর্তিতা এই দুইজনকে দীর্ঘায়ু করতে সহায়তা করেছে বলে মনে করেন রানীশংকৈল হাসপাতালের চিকিৎসক আবদুস সামাদ চৌধুরী।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email