মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডিমলায় জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

জাহাঙ্গীর রেজা, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ”নির্ভুল জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন করব, শুদ্ধ তথ্যভান্ডার গড়ব” এবারের এই প্রতিপাদ্যে নীলফামারীর ডিমলায় “জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস –২০২২” উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬-অক্টোবর) দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে সকাল ১১ টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে জন্ম-মৃত্যু বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ এক আলোচনা সভার আয়োজন করে ডিমলা উপজেলা প্রশাসন।

উক্ত আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন এঁর সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম। এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রাশেদুজ্জামান।

এসময় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিষয়ক দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য দেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নীরেন্দ্রনাথ রায় ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সেকেন্দার আলী৷

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বালাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান, উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা সেলিনা আক্তার, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল দপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী তুহিন হাসান বিশ্বাস, উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী বজলুল রহমান, উপজেলা আইসিটি সহকারী প্রোগ্রামার নাজিমুল ইসলাম, ডিমলা সদর ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের সচিব, ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারের উদ্দোক্তা, পরিবার কল্যান সহকারীসহ সুশীল সমাজ।

অনুষ্ঠানের সভাপতি পরিবার কল্যান সহকারী ও  ইউপি সচিবদের উদ্দেশ্যে বলেন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ এর ৮ ধারা অনুযায়ী শিশু জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে নিবন্ধন, কোনো ব্যক্তির মৃত্যুর ৪৫ দিনের মধ্যে মৃত্যু নিবন্ধন করতে হবে। আর এটাকে আরও কার্যকরী করার জন্য আজকের এই দিনে দিবসটি জাতীয়ভাবে  পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যাতে সাধারণ মানুষ আরও উদ্বুদ্ধ হয়।

উল্লেখ্যঃ উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নের মধ্যে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রমে উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সুবাস চন্দ্র রায় সবচেয়ে ভালো ফলাফল অর্জন করায় তাকে আর্থিকভাবে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।