শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ডিমলায় ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুলের সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের সখ্যতার অভিযোগ

জাহাঙ্গীর ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারীর ডিমলায় ফেন্সিডিল ব্যবসায়ীকে ৩ ঘন্টা আটক রেখে বিজিপি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার দুপুর ১২টায় বালাপাড়া সীমান্ত এলাকায় ভারতে ছাগল পাচার করার সময় পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের আবুল কাশেমের পুত্র ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী নুর আলম (৩২)কে আটক করে টহলকৃত বিজিপি দল। আটক করার পর বালাপাড়া কোম্পানী কমান্ডে গাছের সাথে নুর আলমকে বেধে রাখা হয়। ৩ ঘন্টা আটকের পর বিকাল ৩টায় পশ্চিম ছাতনাই ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আটককৃত নুর আলমকে লিখিত অঙ্গীকার নামায় নিয়ে যায়। পশ্চিম ছাতনাই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী ও চোরাকারবারীদের সহায়তা করার অভিযোগ উঠেছে। আটককৃত নুর আলম দিনে ভারতে ছাগল পাচার করে রাতের অন্ধকারে ছাগলের বিনিময়ে বালাপাড়া সীমামত্ম দিয়ে ফেন্সিডিল নিয়ে আসত মর্মে এলাকাবাসী দাবী করে। গত ২৯ অক্টোবর ঠাকুরগঞ্জ বাজারে আমিনুর রহমানে দোকান থেকে ৩ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। আমিনুর জানায়, তার দোকানে নুর আলম ফেন্সিডিলগুলি রেখেছিল। ঘটনার পর থেকে নুর আলম পুলিশের ভয়ে পালাতক ছিল বেশ কিছুদিন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম জানায়, বিজিপির সুবেদার লুৎফর রহমানকে আটটকৃত ব্যক্তিকে থানায় সোপর্দ করতে বলা হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান চোরাকারবারীকে জিম্মায় ছেরে দেয়া প্রসঙ্গে বলেন, চেয়ারম্যান বিষয়টি অন্যায় করেছে। বালাপাড়া বিজিপির সুবেদার লুৎফর রহমান জানায়, আটককৃত নুর আলম ভারতে ছাগল পাচার করার সময় টহলরত দল তাকে আটক করে। ৩ ঘন্টা আটকের পর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারম্নল ও ইউপি সদস্য মোজাহার হোসেনের লিখিত জিম্মায় আটক ব্যক্তিকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। উদ্ধারকৃত ছাগলটি কাস্টসসে নিলামের জন্য রাখা হবে। চোরাকারবারীকে চেয়ারম্যান তার জীম্মায় নিতে পারে কিনা প্রসঙ্গে, তিনি কোন মমত্মব্য করতে রাজী হয়নি। ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল জানায়, আটককৃত নুর আলম ফেন্সিডিল ব্যবসায় সাথে জড়িত তা আমার জানা নেই। ডিমলা থানার ওসি শওকত আলী জানায়, আটককৃত ব্যক্তি চেয়ারম্যানের ভাষ্য অনুযায়ী ভাল মর্মে বিজিপির সুবেদার লুৎফর রহমান ছেরে দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। তিনি বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বিজিপির সুবেদার লুৎফর রহমানকে বলেন।

Spread the love