শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ডিমলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের মুল্যবান গাছ কর্তন

ডিমলা(নীলফামারী) : নীলফামারীর ডিমলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের যোগসাযোসে মুল্যবান গাছ বিনা টেন্ডারে কর্তন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার উপজেলার তিসত্মা ব্যারেজের উত্তর খড়িবাড়ী পাটগ্রাম পাড়ায় ২টি মুল্যবান সরকারী শিমুল গাছের মধ্যে ১টি কেটে রাতের আধারে পাচার করা হয়। শুক্রবার গাছটি ৪টি খন্ড করে পাউবোর সিবিএ নেতারা আটক করে ডালিয়া পাউবো অফিসে নিয়ে যায়।

জানা যায়, পাউবোর সহকারী উপ-প্রকৌশলী তোবারক হোসেন, কার্যাদেশ সহকারী রাসেল ইসলাম যোগসাযোসে ঠিকাদার সোহাগের নিকট ৩৫ হাজার টাকায় ২টি গাছ গোপনে বিক্রি করে সোহাগ দাবী করে। বৃহস্পতিবার ছুটির দিন থাকার সুযোগে ঠিকাদার সোহাগকে গাছ ২টি কেটে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ প্রদান করে গাঢাকা দিয়েছে উক্ত কর্মকর্তাদ্বয়।

Dimala-02 এলাকাবাসী জানায় কার্যাদেশ সহকারী রাসেল ইসলামের শ্বশুড় বাড়ী সংলগ্ন শিমুল গাছ ২টি ঝুকিপূর্ন দেখিয়ে তার শ্বশুর সামচুল হকের মাধ্যমে জরম্নরী অপসারনের আবেদন করে রাতের আধারে তা বিক্রি করে দেয়। কার্যাদেশ সহকারী রাসেল ইসলাম জানায়, আমার শ্বশুর বাড়ী সংলগ্ন ২টি শিমুল গাছ ঝুকিপুর্ন হওয়ায় কর্মকর্তাদের বলে আমি সোহাকে দিয়ে কেটে নিয়েছি। গাছ কর্তনে জড়িত থাকায় অভিযোগে জড়িত সোহাগ জানায়, আমি ৩৫ হাজার টাকায় এসও তোবারক ও রাসেলের সাথে কথা বলে। বৃহস্পতিবার কাটার সময় এসও সুরম্নতুজ্জামান গাছ কাটতে নিষেধ করলে ১টি গাছ কেটে চলে আসি। শুক্রবার সকালে মতির বাজারের ছ-মিল থেকে পাউবোর লোকজন কর্তন করা গাছের ৪টি খন্ড আটক করে। এ ব্যাপারে একাধিকবার পাউবোর সহকারী উপ-প্রকৌশলী তোবারক হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও বন্ধ থাকায় মত্মব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। সহকারী প্রকেৌশলী ফজলুল হক জানায়, আটককৃত গাছ কর্তনকারীর ও জড়িতদের বিরম্নদ্ধে মামলা করা হবে।

 

Spread the love