মঙ্গলবার ১৬ অগাস্ট ২০২২ ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডিমলায় মানষিক ভারসাম্যহীন স্বামীর পেনশনের টাকা আত্মসাৎ করার চেষ্টায় বড় ভাই ও সতীন পুত্র কর্তৃক স্ত্রী লাঞ্জিত

জাহাঙ্গীর আলম (রেজা),ডিমলা, (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ- ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পিয়ন পদে চাকুরীরত অবস্থায় স্বামী নুরুজ্জামান শাহ্ মানসিক রোগে আক্রান্ত হওয়ায় পেনশনের টাকা আত্মসাতের নিমিত্তে স্ত্রী রোজিফা বেগম স্বামীর বড় ভাই ও সতীন পুত্র দ্বারা জখমী হইয়া ডিমলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রাপ্ত অভিযোগে জানা যায়, গত প্রায় চার বৎসর পূর্বে ২য় স্ত্রী হিসাবে রোজিফা বেগমের বিবাহ হয় ডিমলা উপজেলার ডালিয়া গ্রামের ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পিয়ন নুরম্নজ্জামান শাহ্ এর সহিত। বিবাহের কিছুদিন পর নুরম্নজ্জামান শাহ্ মানষিক রোগে আক্রান্ত হইয়া দীর্ঘদিন যাবত ভূগিতেছিল। নুরুজ্জামান শাহ্ এর ১ম স্ত্রী মৃত্যুবরন করে এবং পরবর্তীতে নুরুজ্জামান শাহ্ মৃত্যু হইলে ২য় স্ত্রী হিসাবে রোজিফা বেগম স্বামীর গ্রাইচ্যুইটি পেনশনের টাকার একমাত্র দাবীদার। এদিকে একই দপ্তরে চাকুরীরত (বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত) নুরম্নজ্জামান শাহ্ এর বড় ভাই নুর আলম শাহ ও রোজিফার সতীন পুত্র রাসেল, রুবেল, আশরাফুল, হিরু তাহারা রোজিফা বেগমের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করিতে থাকে এবং প্রায় সময় ঝগড়া বিবাদ বাধাইয়া ডাংমার করিয়া তাহাদের বাড়ী হইতে তাড়াইয়া দিত। এ বিষয়ে স্থানীয় ভাবে আপোষ মীমাংসা হয়। কিন্তু স্বামীর বড় ভাই ও সতীন পুত্ররা রোজিফা বেগমকে নির্যাতন করা বন্ধ না করিয়া গত ০৮/১০/২০১৫ইং তারিখ বিকাল অনুমান ৩.০০ ঘটিকার সময় বেদম ভাবে ডাংমার করিয়া গুরুতর জখমী অবস্থায় তাহাদের বাড়ী হইতে বাহির করিয়া দিলে বর্তমানে রোজিফা বেগম ডিমলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এ বিষয়ে রোজিফা বেগম পানি উন্নয়ন বোর্ডের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email