রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তারেক রহমানকে উন্মাদ বললেন গাফফার চৌধুরী

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট আবদুল গাফফার চৌধুরী বলেন, তারেক রহমান একজন জীবন্ত উন্মাদ। তাকে অর্ধউন্মাদ বললেও সম্মান করা হবে। বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বামপন্থিদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, আগে শেখ মুজিবুর রহমানকে বামপন্থিরা বঙ্গবন্ধু বলে ডাকত না। তাদের ভুল ভেঙেছে। মন্ত্রিসভায় স্থান পাওয়া বামের নেতারা এখন বঙ্গবন্ধু শব্দটি ব্যবহার করেন।
আজ বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সেভেন মার্চ ফাউন্ডেশন নামক সংগঠনের মতবিনিময় সভায় একথা বলেন তিনি। মোনায়েম সরকারের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ডা. সারওয়ার, অগ্রণী রিসার্চের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুদ্দিন আহমদ এবং সিনিয়র রিসার্চ এডভাইজর ড. কপিল আহমেদ।
আবদুল গাফফার চৌধুরী বলেন, তারেক রহমান বীরত্বের সাথে দেশে চেহারা দেখাতে পারেন না। জামায়াতের লোক নিয়ে তিনি লাখ পাউন্ড খরচ করে বিদেশে সভা করেন। আর পালিয়ে বেড়ান। তাকে চিৎকার করতে দিন। তার চিৎকারে বঙ্গবন্ধুর কিছু হবে না। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের এক আলোচনা সভায় লন্ডনে তারেক রহমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার জবাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিশিষ্ট এ সাংবাদিক। তিনি বলেন, ৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু ‘জয় পাকিস্তান’ বলেছিলেন বলে এ কে খন্দকারের প্রকাশিত বইয়ে যে তথ্য দেয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুল।
গাফফার চৌধুরী বলেন, ১৯৭১ সালের ৪ জানুয়ারি পাকিস্তানের গণপরিষদের সদস্যপদের শপথ নেয়ার কারণে বঙ্গবন্ধু জয় পাকিস্তান বলেছিলেন। তবে ৭ মার্চের ভাষণে নয়। এমনকি ৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু যেখানে ‘পাকিস্তান’ শব্দটি ব্যবহারের দরকার ছিল সেখানে ‘পূর্ব পাকিস্তান’ অথবা ‘বাংলাদেশ’ শব্দটি উচ্চারণ করেছেন। তিনি বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে এসব বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন, তারা জামায়াতে ইসলামীর কেউ না। তারা আমাদেরই লোক, নাম বলতে চাই না, শত্রু বাড়াতে চাই না। তারা নানা সুবিধার পাওয়ার জন্য এসব কথা বলেন।

Spread the love