মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তুরস্কের স্থানীয় নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের জয়

pilotzhaharieইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: তুরস্কের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী রেসেপ তায়েপ এরদোয়ানের নেতৃত্বাধীন জাস্টিস এন্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (একেপি) জয় পেয়েছে। ২০১৩ সালের জুনে সরকারবিরোধী ব্যাপক বিক্ষোভের পর এটিই তুরস্কে প্রথম নির্বাচন। ব্যাপক সরকারবিরোধী বিক্ষোভের পরও এই নির্বাচনের ফলাফলে এরদোয়ান ও তার দলের জনপ্রিয়তা বাড়ার প্রমাণ মিলেছে। বিবিসি বলেছে, ৬০ শতাংশ ভোট গণনার পর একেপি ৪৭ শতাংশ ভোট পেয়ে অনেক এগিয়ে আছে। প্রধান বিরোধীদল পেয়েছে ২৭ শতাংশ ভোট। কর্তৃত্ববাদি শাসন ও দুর্নীতির অভিযোগ এবং ধারাবাহিক কয়েকটি কেলেঙ্কারি ফাঁসের মুখে বেকায়দায় ছিল একেপি সরকার। তবে এসব সত্ত্বেও দলের প্রার্থীদের পক্ষে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে ফসল ঘরে তুলেছেন এরদোয়ান। রাজধানী আঙ্কারায় দলের প্রধান কার্যালয়ের বারান্দা থেকে উচ্ছ্বসিত সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয়ার সময় তাদের ধন্যবাদ জানান তিনি। তিনি বলেন, তুকির্র আদর্শের জন্য, রাজনীতির জন্য এবং আপনাদের দল ও দলের প্রধানমন্ত্রীর জন্য আপনারা সমর্থন যুগিয়েছেন। ভাষণে তিনি সতর্ক করে বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত বলে তাকে অপবাদ দেয়া ও রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা ফাঁস করা ‘‘মিথ্যাবাদি’’ শত্রুদের মধ্যে প্রবেশ করে তিনি তাদের যোগ্য জবাব দেবেন। তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, এর জন্য তাদের মূল্য দিতে হবে। স্থানীয় সরকার ও মেয়র নির্বাচনগুলো মোটামুটি শান্তিপূর্ণ ছিল। তবে বিরোধী কয়েকটি দলের কর্মীদের মধ্যে আলাদা দুটি সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। দেশের শ্রমজীবী ও ধর্মপরায়ণ মানুষের মধ্যে একেপি’র শক্ত ভিত্তি থাকাতেই দলটি নির্বাচনে এ সাফল্য পেয়েছে বলে জানিয়েছেন বিবিসি’র ইস্তাম্বুল প্রতিনিধি।