সোমবার ১৬ মে ২০২২ ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জয় পেয়েছে ভারত

বিশ্বকাপে ৬ উইকেটে  দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জয় পেয়েছে ভারত। ৪ ম্যাচের ৪টিতেই জিতে সর্বোচ্চ ৮ পয়েন্ট অর্জন করল ভারত। সমান ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার অবস্থান দ্বিতীয়। যদিও ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় ভারত। ৪.১ ওভারে দলীয় ১১ রানে জেরম টেইলরের শিকার হন শিখর ধাওয়ান। ব্যক্তিগত ৯ রান করে উইকেটের পিছনে স্লিপে দাঁড়ানো ড্যারেন স্যামির ক্যাচে পরিণত হন ধাওয়ান।
শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা আর বিরাট কোহলি বিদায় নেয়ার পর টপঅর্ডারের আরেক ব্যাটসম্যান অজিঙ্কা রাহানেও বিদায় নেন। দলীয় ৭৮ রানের মাথায় রাহানে ভারতের চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরত যান। ১৮তম ওভারে কেমার রোচের বলে উইকেটের পিছনে দিনেশ রামদিনের হাতে ধরা পড়ে আউট হওয়ার আগে রাহানে ১৪ রান করেন। টপঅর্ডারের ৪ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে রানের চাকা থামেনি ভারতের। দলপতি ধোনিকে সঙ্গে নিয়ে ভালোভাবেই এগিয়ে চলেন সুরেশ রায়না। তবে, ২৩তম ওভারে স্মিথের করা বলে রায়না উইকেটের পিছনে রামদিনের গ্লাভসবন্দি হন। আউট হওয়ার আগে তিনি ২৫ বলে ২২ রান করেন।
ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে ২৭ রানের ছোট্ট জুটি গড়ে আউট হন রবীন্দ্র জাদেজা। ব্যক্তিগত ১৩ রান করে আন্দ্রে রাসেলের বলে ডিপ স্কয়ার লেগে স্যামুয়েলসের তালুবন্দি হন জাদেজা। তবে শেষ দিকে ধোনি ব্যাটিংয়ের হাল ধরে ৪৫ এবং অশ্বিন ১৬ রান করে অপরাজিত থেকে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ৫১ রানে জুটিও গড়েন তারা।
এর আগে আজ শুক্রবার বেলা ১২ টায় টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার। কিন্তু শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ৪৪.১ ওভারে ১৮২ রান তুলতে সক্ষম হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর আগে ব্যাট করতে ৫ম ওভার থেকেই ধাক্কা খায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মোহাম্মদ শামির বলে ধোনির হাতে ক্যাচ দেন ৬ রান করা ডোয়াইন স্মিথ। সেই ধাক্কা সামলে ওঠার বদলে সপ্তম ওভারে রান আউটের শিকার মারলন স্যামুয়েলস। শুরুতে ২ উইকেট হারানোর চাপ ঝেড়ে ফেলতে মারমুখী হয়ে ওঠেন ক্রিস গেইল। তবে ৬ মারতে গিয়ে শামির ২য় শিকারে পরিণত হন দলের ৩৫ রানেই। ২৫ বলের ইনিংসে ২ চার ১ ছয়ে ২১ রান করেন গেইল।
উইকেটকিপার দিনেশ রামদিনের উইকেটে স্থায়ীত্ব মাত্র ১ বল। উমেশ যাদবের বলে ইনসাইডএজড হয়ে বোল্ড হন ক্যারিবীয়দের টেস্ট অধিনায়ক। দলীয় ৩৫ রানে টপঅর্ডারের ৫ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ধুঁকতে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিজেদের ব্যাটিং লাইনআপ কিছুটা হলেও সামলে উঠার চেষ্টা করে। জোনাথন কার্টারের সঙ্গে ৩২ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরত যান সিমন্স। মোহিত শর্মার বলে যাদবের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হওয়ার আগে সিমন্স করেন ২২ বলে মাত্র ৯ রান। দলীয় ৭১ রানের মাথায় ৬ষ্ঠ উইকেট হারায় ক্যারিবীয়রা। ২২তম ওভারে অশ্বিনের বলে সামির তালুবন্দি হয়ে ফেরেন ক্যারিবীয়দের আশা দেখানো ২১ রান করা জোনাথন কার্টার। এর পর ব্যাটিং ক্রিজে আসেন আন্দ্রে রাসেল। তবে ২৫তম ওভারের ১ম বলেই রবিন্দ্র জাদেজা বিরাট কোহলির ক্যাচে পরিণত করেন রাসেলকে। ফলে ৭ম ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরেন রাসেল।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email