শনিবার ২১ মে ২০২২ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দফায় দফায় বোমা হামলা জাগরণের রোডমার্চে

Gono Jagoran-02শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে বগুড়ার শেরপুরের শেরুয়া বটতলা, বনানী বাইপাস ও শাহজাহানপুরের পটকি ব্রিজ এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁও অভিমুখে গণজাগরণ মঞ্চের রোডমার্চের গাড়িবহরে। দফায় দফায় হাতবোমা হামলায় অন্তত দুই জন আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন- বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক তানভীর রুসমত ও ‍যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মাকসুদুল আলম (৬৫)।

শেরপুর থানার ওসি আলী আহম্মেদ জানান, দুর্বৃত্তদের হামলার পর শেরপুর বাসস্ট্যান্ডে একটি সংক্ষিপ্ত পথসভায় অংশ নিয়ে বগুড়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে রোডমার্চ।

এরপর বগুড়া শহরে ঢোকার আগে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বনানী বাইপাস এলাকায় অন্তত দুই দফা বোমা হামলা হয়।

নিলয় জানান, তিন মিনিটের ব্যবধানে বহরের গাড়ি লক্ষ্য করে অন্তত ১৫টি হামবোমা ছোড়া হয়।

বহরের সামনে-পিছনে পুলিশ পাহারার মধ্যেই হামলা চলে বলে জানান তিনি।

বগুড়ার শাহজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল মান্নান বলেন, পটকি ব্রিজ এলাকায় দুর্বৃত্তরা কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটালে গাড়িবহরের সঙ্গে থাকা পুলিশ সদস্যরা পাঁচ থেকে ছয় রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এরপর হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

রাত পৌনে ৯টার দিকে বগুড়া শহরে পৌঁছায় গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা। শহরের জিরো পয়েন্ট সাত মাথায় নির্ধারিত সমাবেশ শেষে রাতে সেখানেই থাকার কথা রয়েছে তাদের।

নির্বাচন পরবর্তী সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে সকালে শাহবাগ থেকে ঠাকুরগাঁও অভিমুখে রোডমার্চ শুরু করে গণজাগরণ মঞ্চ।

এর আগে গত ১১ ও ১২ জানুয়ারি যশোরের অভয়নগরের মালোপাড়া অভিমুখে রোডমার্চ করে যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসি ও জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্র-জনতার এ মঞ্চ।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email