সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দরিদ্র মানুষের জন্য গ্রামীণ ব্যাংক সৃষ্টি করা হয়েছে : ড. ইউনূস

Dr. Younusগ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও নোবেলজয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, দরিদ্র মানুষের জন্য গ্রামীণ ব্যাংক সৃষ্টি করা হয়েছে। এর থেকে বিচ্যুত হতে দেয়া যাবে না। এতগুলো লোকের ইচ্ছাকে তলিয়ে যেতে দেয়া যাবে না। গ্রামীণ ব্যাংক রক্ষার সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে। সামাজিক ব্যবসা দিবস উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসনে আয়োজিত এক সম্মেলন শেষে সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।
অনুষ্ঠানে সোশ্যাল বিজনেস ডিজাইন ল্যাবের আওতায় হাইতি, নেপাল, উগান্ডা ও বাংলাদেশের সামাজিক ব্যবসার অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা হয়। প্রথম কর্ম অধিবেশনে বক্তব্য দেন, গ্রামীণ আমেরিকার প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেয়া জাং, জার্মানি ইউনূস সোশ্যাল বিজনেসের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সোফি আইজানম্যান, নেপালের চৌধুরী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) নির্ভানা চৌধুরী, কম্বোডিয়ার ফ্রি, পারফর্মিং সোশ্যাল এন্টারপ্রাইজের প্রধান নির্বাহী হাউট ডারা, চায়না সোশ্যাল বিজনেস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক গোয়া জান, ভারতের নাভার্ড গ্রুপের প্রধান মহাব্যবস্থাপক বি এস সুরান প্রমুখ।
সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন যুক্তরাষ্ট্রের কেনেডি ফাউন্ডেশন ফর জাস্টিস এন্ড হিউম্যান রাইটসের প্রেসিডেন্ট কেরি কেনেডি। মূল প্রবন্ধে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রায় কয়েকটি চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করে বলা হয়, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের চ্যালেঞ্জগুলো হচ্ছে- সরকারের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, বিচার ব্যবস্থায় রাজনীতিকরণ ইত্যাদি। সম্মেলনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনাসহ কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রদূত উপস্থিত ছিলেন।
তরুণদের উদ্দেশে ইউনূস বলেন, পরিকল্পনা নিয়ে এলে বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে তহবিলের সংকট হবে না। তরুণেরা যখন ব্যবসার উদ্যোগ নিয়ে আসেন, তখন আমরা খুব অনুপ্রাণিত হই। সামাজিক ব্যবসা দিয়ে সামাজিক সমস্যা দূর করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তরুণদের স্বপ্ন ও উদ্যোগ নিয়ে বেকারত্ব দূর করতে হবে।
ড. ইউনূস মনে করেন, পৃথিবীতে এমন পরিস্থিতি তৈরি হবে যখন বেকারত্ব বলে কিছু থাকবে না। সুস্থ শরীরের একজন মানুষ বেকার থাকবে, এটা হতে পারে না।