শনিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৩ ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের কর্ণাই বাজারে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা।

Fairদিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর সদরের কর্ণাই বাজারে অগ্নি সংযোগ হিন্দু ও মুসলিমদের বাড়ীঘর ভাংচুর লুটপাটের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে ঘটনার দায়ীদের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করেছে মহিলা পরিষদ।

সদরের চেহেলগাজী ইউনিয়নের কর্নাই বাজার এলাকার গত নির্বাচনের দিবাগত রাতে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ী ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সদর থানায় ৪শত জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে, কর্ণাই হাজী পাড়ার বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী পারুল বেগম বাদী হয়ে  দ্রুত বিচার আইনে স্থানীয় বর্তমান ইউপি সদস্য নাজির আহমেদকে প্রধান আসামী করে ৭৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরোও ৪ শ’ত জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় এ পর্যন্ত ৩৩ জনকে আটক করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে ।

দিনাজপুর সদর থানার ওসি আলতাফ হোসেন দ্রুত বিচার আইনে মামলা ও আসামী আটকের সংবাদ নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখা। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ২ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মহিলা পরিষদের সভাপতি কানিজ রহমান, সাধারন সম্পাদক মারুফা বেগম, রত্না মিত্র, রুবি আফরোজ, উদীচীর রেজাউর রহমান রেজু, সম্মিলিতি সাংস্কৃতিক জোটের কামাল উদ্দিন বাচ্চু, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান সফিকুল হক ছুটু, উদীচীর সত্যসাহা প্রমূখ।

হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃীষ্টান ঐক্য পরিষদ দিনাজপুরের সাধারন সম্পাদক পরিমল চক্রবর্তী তপন জানান, চেহেলগাজী ইউনিয়নের পিতামপাড়া, তেলিপাড়া, হাজীপাড়া, সাহাপাড়া ও বালুপাড়ার সংখ্যালঘু হিন্দু পবিবারের উপর হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ ৩শ পরিবারের মাঝে শাড়ী ও লুঙ্গি বিতরন করেছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃীষ্টান ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দ।