সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের কাহারোলে অগ্নিকান্ডে ৩২টি দোকান পুড়ে ছাই। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান ২কোটি টাকা

Fairদিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের কাহারোলে গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় অগ্নিকান্ডে ৩২টি দোকান সম্পূর্ণরুপে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান প্রায়  ২ কোটি টাকা।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কাহারোল উপজেলার ১নং ডাবোর ইউনিয়নের জয়নন্দ বাজারে এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৩২টি দোকান মালামালসহ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সময় জয়নন্দ বাজার হরিসভা মন্দিরে ধর্মীয় প্রার্থনায় অংশগ্রহণকারীগণ আগুন দেখতে পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে আগুন নেভানোর কাজে অংশগ্রহণ করেন। ততক্ষণে আগুণ ছড়িয়ে পড়ে অমৃত্য রায়ের দেবাশীষ বস্ত্রালয়, শফিকুল ইসলামের স্বর্ণ গার্মেন্টস, হাফিজুর রহমানের ভাই ভাই গার্মেন্টস, ফারুক হোসেনের লাকি গার্মেন্টস, মোঃ রিপনের রিপন সুজ, এনতাজুল হকের এনতাজুল ক্লথ ষ্টোরসহ মোট ৩২টি দোকানে। সংবাদ পেয়ে বোচাগঞ্জ উপজেলা এবং ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার অগ্নিনির্বাপক দল এসে সকাল ৬টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

আগুন নেভানোর কাজে অংশগ্রহণকারী হরিবাসর কমিটির সদস্য  আনন্দ রায় জানান, মন্দিরের দক্ষিণের মার্কেটে ভোর রাতে হঠাৎ করে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলতে দেখে আমরা মন্দিরে অবস্থিত সকলেই ছুটে যাই আগুন নেভাতে। কিন্তু আগুন দ্রম্নত ছড়িয়ে পড়ে।

ক্ষতিগ্রস্থ দেবাশীষ বস্ত্রালয়ের মালিক অমৃত্য রায় জানান, রাত ৪টায় মোবাইল ফোনে অগ্নিকান্ডের ঘটনা জানতে পারি। খবর পেয়ে ছুটে এসে দেখি সব শেষ। আমার দোকানে প্রায় ৪০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। একটি কাপড়ও বাঁচাতে পারিনি। এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

বিদ্যুতের সটসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে এলাকাবাসী এবং ডাবোর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিশ্বজিত চন্দ্র রায় জানান।

সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে প্রশাসনের কেউ না আসায় ক্ষতিগ্রস্থ এবং অন্যান্য দোকানদার মালিকগণ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।