বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের কৃতি সন্তান সাবেক জেলা প্রশাসক জালাল উদ্দীন আহমেদ এর আজ কুলখানি

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরের কৃতি সন্তান পঞ্চগড় ও নাটোর জেলার সাবেক জেলা প্রশাসক ও অবসরপ্রাপ্ত যুগ্ম সচিব মরহুম আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন আহমেদ এর আজ বুধবার ৪ ডিসেম্বর নিজ বাসভবনে কুলখানি অনুষ্ঠিত হবে। দিনাজপুরের বিরল উপজেলার জগৎপুর গ্রামের মরহুম জামাল উদ্দীন আহমেদ ও মরহুমা ফাতেমা বেগমের প্রথম পুত্র পঞ্চগড় ও নাটোর জেলার সাবেক জেলা প্রশাসক ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অবসরপ্রাপ্ত সাবেক যুগ্মসচিব আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন আহমেদ গত ২৯ নভেম্বর’১৩ ইং ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে বেলা ১.২০মিনিটে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল­vহে- রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। মৃত্যুকালে তিনি ২ পুত্র সন্তান, আত্মীয়-স্বজন,সুভাকাঙ্খী ও বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাকে বিরল উপজেলার জগৎপুর গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে গত ৩০ নভেম্বর তার স্ত্রী মরহুমা অধ্যাপিকা রওশনারা  জালালের কবরের পাশে সমাহিত করা হয়। উল্লখ্য মরহুম আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন আহমেদ ১৯৪০ সালের ২৫ শে ডিসেম্বর বিরল উপজেলার জগৎপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। শিক্ষা জীবনে তিনি এম.এ ও এল.এল.বি পাশ করেন। ছাত্রজীবন শেষে ১৯৬৪ সালে তিনি বার কাউন্সিলে যোগদান করেন। দিনাজপুর ও ঢাকা বার কাউন্সিলের ও তিনি সদস্য ছিলেন। ১৯৬৮ সালে তৎকালীন ইস্ট পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন। তিনি ডিপুটি ম্যাজিস্ট্রেট ও ডিপুটি কালেকটরেট পদ ছাড়াও বিভিন্ন জেলায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সেরিকালচার বোর্ডে ‘সচিব’ পদে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও সমাজ কল্যান মন্ত্রণালয়ে পরিচালক পদে ও বিএফডিসি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সমাজকল্যাণ, পরিকল্পনা ও অর্থ মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে যুগ্ম সচিব পদে ৯ (নয়) বছর সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিদ্যোৎসাহী ও শিক্ষানুরাগী ছিলেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থ ৩টি এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য A Tale of Two Ladies, Farewell to Arms ও গণতন্ত্র ফিরিয়েদিন। তিনি একজন রাজনীতিবিষয়ক বিশে­ষক ছিলেন। তিনি সমসাময়িক , সরকার ও রাজনীতি বিষয়ে অনেক প্রবন্ধ রচনা করেন। ২০১২ সালে তিনি শিশু কবি রকি সাহিত্য রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রাবন্ধিক হিসেবে পুরস্কার লাভ করেন। তিনি বিরল উপজেলায় বোর্ড হাট কলেজ, একটি এতিমখানা, একটি দাখিল মাদ্রাসা, একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুল , একটি লাইব্রেরী, একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান সহ অনেক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি চাকুরী জীবন ও ব্যক্তিগত জীবনে আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ফ্রান্স,কানাডা,জাপান, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, ভারত ও নেপাল ভ্রমণ করেন। মরহুম আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন আহমেদ এর বড় ছেলে মাসুদ আহমেদ রাশিয়ায় ফিন্যান্স কনসাল্টটেন্ট ও ছোট ছেলে লে.কর্নেল মিনহাজ আহমেদ বাংলাদেশ সেনাবাহীনিতে সুনামের সাথে বর্তমানে দায়িত্বপালন করছেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email