বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে অবরোধের প্রথম দিন মোটরসাইকেল ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় অতিবাহিত ট্রেন চলাচল বন্ধ

Picture-02-26.11.13দিনাজপুর প্রতিনিধি: ১৮ দলের ডাকা ৪৮ ঘন্টার অবরোধে দিনাজপুর শহরের সব প্রবেশ পথ কার্যত অচল হয়ে পড়েছে। সকাল থেকে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা শহরের বিভিন্ন প্রবেশ পথে অবস্থান নিয়ে মিছিল, সভা-সমাবেশ করছে। ফলে সকাল থেকে ট্রেন, বাস, ট্রাকসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। অজানা আতংকের কালনে শহরের অনেক দোকান-পাট বন্ধ রয়েছে।

মঙ্গলবাল সকাল থেকে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে দিনাজপুর শহরের প্রবেশ পথ ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড, সুইহারী কলেজ মোড়, কাঞ্চন ব্রীজ মোড়, পুলহাট মোড়, চিরিরবন্দর বটতলী মোড়সহ সব প্রবেশপথে অবস্থান নিয়ে খন্ড খন্ড মিছিল ও সমাবেশ করেছে। শহরের প্রবেশ পথ ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ১৮ দলের জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ রেল লাইনের উপর বসে অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করায় দিনাজপুর থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবরোধ চলাকালে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব লুৎফর রহমান মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক মুকুর চৌধুরী, জেলা জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমীর এ্যাড. মাহবুবুর রহমান ভূট্টো, শহর জামায়াতের আমীর এ্যাড. মোঃ তৈয়ব আলী, জেলা জাগপার সভাপতি আলহাজ্ব রকিব উদ্দীন চৌধুরী মুন্না, জেলা ন্যাপ সভাপতি মঞ্জরুল আলম প্রমূখ

সুইহারী কলেজ মোড়ে পৌর বিএনপির সভাপতি সোলায়মান মোলস্নার নেতৃত্বে বিএনপি, জামায়াত-মিবিরসহ ১৮ দলের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে। পুলহাটে কোতয়ালী বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক ও সাধারণ সম্পাদক মুরাদ আহমেদ’র নেতৃত্বে, কাঞ্চন ব্রীজ মোড়ে পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জাকির হোসেন বাবু’র নেতৃত্বে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা সকাল থেকেই খন্ড খন্ড মিছিল ও সমাবেশ করেছে। তবে দিনাজপুরে শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ পালিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়ে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল ঘোষণার পর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেশব্যাপী ৪৮ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচী ঘোষণা করেন।

এদিকে সোমবার সন্ধ্যায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারের ভাষণ শেষ হওয়ার সাথে সাথে দিনাজপুরে ১৮ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। জেল রোডস্থ বিএনপি’র কার্যালয় হতে ১৮ দলীয় জোট এই তফসিল প্রত্যাখান করে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি বাহাদুর বাজার, স্টেশন রোড ও হাসপাতাল মোড় প্রদক্ষিণ করার সময় দলীয় নেতা-কর্মীরা বিক্ষুদ্ধ হয়ে রাসত্মার দু’পাশের দোকানপাট ও আওয়ামী লীগের উন্নয়নের ফিরিস্তি দিয়ে টাঙ্গানো বিলবোর্ড ভাংচুর করে। এ সময় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। মুহুর্তের মধ্যে শহরময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যায়।

দিনাজপুর শহরের নিমনগর বাস্ট্যান্ড রেলগুমটিতে অবরোধকারীদের অবস্থানের ফলে এ সড়ক দিকে সকলপ্রকার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পাশাপাশি রেল লাইনে দলীয় নেতাকর্মীদের সমাবেশের ফলে দিনাজপুর থেকে কোন ট্রেন ছেড়ে যায়নি। শহরের বিভিন্ন স্থানে ৮টি মোটর সাইকেল ভাংচুর ও ১টিতে অগ্নিসংযোগ করে। এসময় জিয়া নামের এক বিএনপির কর্মীকে পুলিশ আটক করেছে।

চিরিরবন্দর উপজেলার ফুলবাড়ী-দিনাজপুর সড়কের আমতলীতে পিকেটাররা ৪টি মটর সাইকেল ও ১টি শ্যালো ইঞ্জিন চালিত টেম্পু এবং চিরিরবন্দর-দিনাজপুর সড়কের কারেন্টহাটে ১টি শ্যালো ইঞ্জিন চালিত টেম্পু ও ১টি মটর সাইকেল ভাংচুর করেছে। এদিকে, রাণীরবন্দরের সুইহারি বাজারে পিকেটাররা নশরতপুর ইউপি সদস্য মো. আজহার আলীকে  মারপিট করে আহত করে। অবরোধ কর্মসুচি চলাকালে রাণীরবন্দরে সৈয়দপুর-দশমাইল মহাসড়কে অবরোধকারীরা গাছের গুড়ি ফেলে মহাসড়কে চলাচল বন্ধ করে দেয়।

দিনাজপুর শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করে। শহরের বিভিন্ন মোড়ে ও গুরুত্বপূর্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবির টহল দল শহর জুড়ে টহল দিচ্ছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email