বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে কমরেড গুরুদাস তালুকদারের ৩৫তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন

জিন্নাত হোসেন ॥ বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি দিনাজপুর জেলার উদ্যোগে প্রখ্যাত কমিউনিষ্ট নেতা কমরেড গুরুদাস তালুকদারের ৩৫তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন করা হয়।

২২শে ফেব্র“য়ারী রোববার সন্ধ্যায় দিনাজপুর প্রেসকাব মিলনায়তনে বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি দিনাজপুর জেলার উদ্যোগে প্রখ্যাত কমিউনিষ্ট নেতা কমরেড গুরুদাস তালুকদারের ৩৫ তম মৃত্যু বার্ষিকী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিপিবি জেলা সভাপতি কমরেড মোঃ আলতাফ হোসাইন। কৃষক শ্রমিক মেহনতি মানুষের মুক্তির সংগ্রামে নিবেদিত প্রাণ কমরেড গুরুদাস তালুকদার ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার জন্য কৈশোর বয়সে সন্ত্রাসবাদী আন্দোলনের মাধ্যমে রাজনীতির যে হাতে খড়ি নিয়েছিলেন পরবর্তিতে দরিদ্র ও নিপিড়িত মানুষের প্রতি ভালোবাসা ও শোষকদের প্রতি ঘৃণাই কমরেড গুরুদাসকে মার্কসবাদ লেলিনবাদের দিায় অনুপ্রাণিত করে। ৩০ দশকে তিনি কমিউনিষ্ট পার্টিতে যোগ দেন। আমাদের জেলার জমিদারদের বর্বর নির্যাতন ও শোষনের বিরুদ্ধে কৃষকদের সংগঠিত করার জন্য তিনি ছিলেন অগ্রণী। কমরেড গুরুদাসের মত কয়েকজন বিপ্লবী নেতার কর্ম প্রেরণা ও প্রচেষ্ঠার ফলে কৃষকরা বিদ্রোহ করেছিলেন। ঐতিহাসিক তেভাগা আন্দোলন এই দিনাজপুর জেলাকে করেছিল গৌরবানিত্ব। ৫২’র ভাষা আন্দোলন, সামরিক শাসন বিরোধী আন্দোলন, ৬৯ এর গণঅভ্যুথান ও মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলোতে তার অবদান আমরা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি। তার দেখানো আদর্শের পথ ধরেই মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য বাম গণতান্ত্রিক বলয় গড়ে তুলতে হবে। বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টি দিনাজপুর জেলা শাখার কমরেড হবিবর রহমান, সিপিবি জেলা সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ মেহেরুল ইসলাম, জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি কমরেড বদিউজ্জামান বাদল, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন দিনাজপুর জেলার সভাপতি অমৃত কুমার রায়, যুব ইউনিয়ন দিনাজপুর এর যুগ্ম আহবায়ক টংক নাথ অধিকারী, কবি বাসুদেব শীল, জেলা জাসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শহিদুল্লাহ, জাসদের জেলা সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ লিয়াকত আলী, বাসদের নেত্রী বাসন্তি মালাকার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দিন বাচ্চু, নাট্য সমিতির সাধারণ সম্পাদক রেজাউর রহমান রেজু, বাসদ মার্কবাদী রেজাউল ইসলাম সবুজ, কৃষক নেত্রী ছবিতা রানী রায়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সিপিবি সদর উপজেলা সভাপতি কমরেড খন্দকার আশরাফুজ্জামান।

Spread the love