বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে চাতাল ও চাউলকল শ্রমিকের জন্য সরকার ঘোষিত মুজুরী বাস্তবায়নের দাবীতে মাববন্ধন

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরে চাতাল ও চাউল কল শ্রমিকদের জন্য সরকার ঘোষিত মজুরী বাস্তবায়নের জোর দাবীতে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সম্মুখে চাতাল শ্রমিক সহায়তা কমিটি (চাসক) জেলা কমিটি এর আয়োজনে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজ -বিল্স এর সহযোগিতায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।

৩০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বেলা ১১ টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ১ ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন চাসক এর আহবায়ক মোঃ সাইফুর রাজ চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক আকরাম হোসেন মুন্না, সদস্য সচিব মোঃ মজিবর রহমান, কোষাধ্যক্ষ রবিউল আউয়াল খোকা, সদস্য- সহিদুল ইসলাম সহিদুল্লাহ্, মোঃ হবিবর রহমান, মহিলা শ্রমিক লীগের সভানেত্রী রাসেদা বেগম, আব্দুল মান্নান, বিমল আগাওয়ালা, শরৎ চন্দ্র রায়, অধ্যাপক বদরুজ্জামান বাদল, দয়া রাম রায়, সারোয়ার হোসেন, জুলকানাইন সাগর, হাফিজুর ইসলাম প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, দিনাজপুর অঞ্চলে চাতাল ও চাউল কলে কর্মরত শ্রমিক কর্মচারীদের জন্য সরকার ঘোষিত বিভিন্ন পর্যায়ে সর্বনিম্ন ৫ হাজার ৮শ ৫০ টাকা ও জেলা পর্যায় ৪ হাজার ৫শ ২০ টাকা ধার্য্য মুজুরী কার্যকর করার আমরা জোর দাবী জানাচ্ছি। এছাড়া নিমণতর মজুরী গ্যাজেট অনুযায়ী শ্রমিক প্রাপ্য মুজুরী পরিশোধের আগে মালিককে গ্রেড অনুযায়ী রেজিস্টারভুক্ত করে মুজুরী সিণপ প্রদান, ঠিকাদার কর্তৃক নিযুক্ত শ্রমিককে শ্রমিক বলে গন্য করা এবং ঠিকাদার মুজুরী ও ক্ষতিপূরণ পরিশোধে মালিকের ন্যায় একই ব্যবস্থা গ্রহণ, শ্রম আইন ২০০৬ অনুযায়ী ঠিকাদার মুজুরী ও ক্ষকিপূরণ পরিশোধ না করলে মালিক নিজে তা প্রদান করতে বাধ্য থাকবেন। যে সব শ্রমিক ইতিমধ্যেই নির্ধারিত নিমণতম মুজুরীর চেয়ে বেশী পাচ্ছেন তাদের মুজুরী কমানো যাবে না এবং প্রয়োজনে নিমণতম মুজুরীর হার কাজের মান, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা প্রভৃতি বিবেচনায় অধিক হারে চাওয়া যাবে। মালিক বা ঠিকাদার ঘোষিত মুজুরী অপেক্ষা কম মুজুরী প্রদান করতে পারবেন না। তবে বেশী দিতে পারবেন। পিস রেট অনুযায়ী কাজের ক্ষেত্রে শ্রমিকের মাসিক মুজুরী ঘোষিত নিমণতম মুজুরীর কম হবে না। নিমণতম মুজুরী ছাড়া শ্রম আইন ২০০৬-এ শ্রমিকের অন্য যে সব সুযোগ সুবিধা পাওয়ার কথা রয়েছে তা বলবৎ থাকবে। মানববন্ধন কর্মসূচীতে নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন চাতাল ও চাউলকল নারী-পুরুষ শ্রমিকরা অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধন কর্মসূচী শেষে জেলা প্রশাসক, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও কলকারখানা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপ-মহাপরিচালক, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ (স্কপ) ঢাকা এবং দিনাজপুর জেলা চাউল কল মালিক গ্রুপ বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

Spread the love