বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে চেক প্রতারনার অভিযোগে সেলিমের ১ বছর কারাদন্ড ও অর্থদন্ড

সাহেব, দিনাজপুর ॥ চেকের মাধ্যমে টাকা নিয়ে প্রতারনা করার অভিযোগে আদালত মোঃ সেলিমকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৬ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা অর্থ দন্ড করেছে। গত বুধবার দিনাজপুর যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ গোলাম মোক্তাদির এ রায় ঘোষনা করেন। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানা গেছে গত ২০০৯ সালের ২৫ মার্চ মোঃ আবুল কালাম আজাদ চেকের মাধ্যমে মোঃ সেলিমকে ৩ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা কর্জ দেন। শর্ত থাকে চাওয়া মাত্র  ৩ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা পরিশোধ করবেন। কিন্তু মোঃ সেলিম টাকা পরিশোধে গরিমসি শুরু করে। পাওনাদার আবুল কালাম আজাদ ঋনী মোঃ সেলিমের স্বাক্ষরিত চেক নিয়ে সোনালী ব্যাংক লিঃ বিরল শাখা দিনাজপুর এর সঞ্চয়ী হিসাব নং ৪২১০/২০ ব্যাংকে জমা দিলে ব্যাংক কতৃপক্ষ চেক ডিসঅনার করে দেন এবং আবুল কালাম আজাদকে জানান উক্ত সঞ্চয়ী হিসাব নং এ কোন টাকা নেই। মোঃ আবুল কালাম আজাদ জেলা দিনাজপুরের প্রথম শ্রেণীর জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৩ (বিরল) এ মোঃ সেলিমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে এন.আই.্এ্যাক্ট এর ১৩৮ ধারায় মামলা দায়ের করে। দীর্ঘদিন মামলা চলার পর মোঃ সেলিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত উপরোক্ত রায় ঘোষনা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামী দিনাজপুর জেলার বিরল থানাধীন কামদেবপুর গ্রামের মোঃ নজরুল ইসলামের পুত্র। মামলা দায়ের করেন একই জেলা ও থানার হরিপুর গ্রামের মোঃ ইয়াকুব হোসেনের পুত্র মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

Spread the love