মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে তিন পৌরসভার বাজেট ঘোষনা

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর পৌরসভার ৪২ কোটি ৬৪ লাখ ৬১ হাজার ৩৯০ টাকার প্রসত্মাবিত বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় পৌসভার ফাতেহুল আলম দুলাল মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে পৌর মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন। বাজেটে সমপরিমান ব্যয় ধরা হয়েছে। মেয়র হিসেবে ক্ষমতা গ্রহনের পর এটি সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমের চতুর্থ বাজেট।

বাজেট বক্তব্যে পৌর মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বাজেট হচ্ছে আগামী দিনের কর্মপরিকল্পনার  একটি বিমূর্ত প্রতিচ্ছবি। এর মাধ্যমে পৌরবাসির কাংখিত নাগরিক সুবিধা প্রদান করা হয়। ১৪৫ বছরের প্রাচীন পৌরসভার পুঞ্জীভূত সমস্যা রাতারাতি সমাধান সম্ভব নয়। যুগের পরিবর্তনে সমস্যার বিসত্মৃতি ঘটেছে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এসব সমস্যা সমাধান করা হবে। বাজেট বক্তব্যে মেয়র সেয়দ বলেন, জাহাঙ্গীর আলম ২ লাখ ৬৫ হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত এই পৌর শহরের রাস্তা, ড্রেন, খাল, পুকুর, পৌরসভার বিভিন্ন স্থাপনা, শৌচাগার, ডাষ্টবিন, হাট-বাজার ইত্যাদি উন্নয়নে বর্তমান পৌর পরিষদ বদ্ধপরিকর। পৌর এলাকার জায়গায় অবৈধ দখলীয় প্রবণতা এবং ব্যবসার মালামাল, নির্মাণ সামগ্রী ফুটপাট ও যত্রতত্র ফেলে রাখার কারণে যানবাহন চলাচল, পানি নিষ্কাশন, আবর্জনা অপসারণ ও অন্যান্য পৌরসেবা কার্যক্রমকে ব্যাহত করছে। এসব সমস্যা সমাধানে পৌর পরিষদসহ পৌরবাসির সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন পৌর মেয়র।

এর আগে মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম দিনাজপুর পৌরসভার শুরু থেকে এ পর্যন্ত যারা চেয়ারম্যান ও মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং গত এক বছরে পৌর সভায় যেসব নাগরিক মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে মৃতদের বিদেহী আত্মার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন ও রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। বাজেট অনুষ্ঠানে পৌরসভার প্যানেল চেয়ারম্যান মুরাদ আহম্মেদ, কাউন্সিলর মোঃ মকবুল হোসেন, রবিউল ইসলাম রবি, জিয়াউর রহমান নওশাদ, রোকেয়া বেগম লাইজু, মনিরুর ইসলাম বুলু, জাহাঙ্গীর আলম, মাহমুদা খাতুন জোসনা, রেহাতুল ইসলাম খোকা, ফয়সাল হাবিব সুমন, আবু তৈয়ব আলী দুলাল, শাহিন সুলতানা বিউটি, মাসতুরা বেগম পুতুল, নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুস সবুর, সকল বিভাগের শাখা প্রধান, বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকা এবং ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ফুলবাড়ী পৌরসভার

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় ফুলবাড়ী পৌরসভা মিলনায়তনে নতুন কোন করারোপ ছাড়াই ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরের ৩৩ কোটি ৯৩ লাখ ৯৭ হাজার ৪১৬ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন ফুলবাড়ী পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক। মোট বাজেটের ১ কোটি ৮১ লাখ ৩৩ হাজার ৫৬৭ টাকা রাজস্ব ও ৩২ কোটি ৯লাখ টাকার উন্নয়ন খাতে নির্ধারণ করা হয়েছে।

বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি। এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ এবিএম রেজাউল ইসলাম, পৌর কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আবুল বাসার, জয়প্রকাশ নারায়ন সেকেন্দার আলী দুলাল, মোতাহার হোসেন, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, সাংবাদিক সমিতির সভাপতি শেখ সাবীর আলী, সাংবাদিক রজব আলী, ওয়ার্কার্স পার্টির সমন্বয়ক শফিকুল ইসলাম শিকদার প্রমুখ। এ সময় ফুলবাড়ী পৌরসভার সচিব, মাহাবুব রহমান প্রকৌশলী, লুৎফুল হুদা চৌধুরী, প্রধান সহকারী জাহাঙ্গীর আলমসহ পৌরসভার পদস্থ কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরের বাজেটটি পাঠ করে উপস্থাপন করেন হিসাব রক্ষক জেবুন নেছা। বাজেট ঘোষণা সভায় ফুলবাড়ী পৌরসভার বিভিন্ন স্তরের রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সেতাবগঞ্জ পৌরসভার

দিনাজপুর প্রতিনিধি  : দিনাজপুর জেলার সেতাবগঞ্জ পৌরসভার ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে ৯ কোটি ১২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। গতকাল ২৫ জুন বুধবার বিকাল ৪টায় সেতাবগঞ্জ পৌরসভার কনফারেন্স রুমে উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে বাজেট ঘোষনা করেন পৌরসভার মেয়র আব্দুস সবুর। নতুন কোন কর আরপ ছাড়াই বাজেট ঘোষনা পরবর্তী সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে পৌর মেয়র আব্দুস সবুর জানান, সেতাবগঞ্জ পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভায় রুপান্তরিত করতে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। বিশেষ করে স্থানীয় সংসদ সদস্য খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর ব্যক্তিগত প্রচেষ্ঠায় ইতিমধ্যে সেতাবগঞ্জ পৌরসভাকে ১ম শ্রেণীতে উন্নীত করন, সরকারের বাৎসরিক বরাদ্ধ দ্বিগুন ও বিশেষ বরাদ্ধ পাওয়ায় বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ চলমান রয়েছে। পৌরবাসীর বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করে তা দ্রুত সমাধন করার জন্য সেতাবগঞ্জ পৌরসভা কাজ করে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এসময় সেতাবগঞ্জ পৌরসভার সচীব, নির্বাহী প্রকৌশলী, সহকারী প্রকৌশলী, হিসাব সহকারী ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।