মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে নারী নির্যাতন নির্মুল করণে মানববন্ধন ও আলোচন সভা অনুষ্ঠিত

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ নারী নির্যাতনমুক্ত পরিবার ও সমাজ গঠনের দায়িত্ব নারী ও পুরুষ উভয়েরই। বেশিরভাগ নারী নির্যাতিত হচ্ছে পুরুষের মাধ্যমে আর তাই নারী নির্যাতন রোধে পুরুষই পারে সবচেয়ে বড় ভুমিকা রাখতে। নির্যাতন ও সহিংসতার কারণে নারীরা শুধু শারীরিক ও মানসিক ক্ষতিরই শিকার হচ্ছেন না, এর ফলে পরিবারগুলো বিপুল পরিমান আর্থিক ক্ষতিরও সম্মুখিন হচ্ছে। এক গবেষণার তথ্য মতে, দেশের ৪ কোটি ৩৪ লাখ বিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত, আলাদা বসবাসকারী নারীর মধ্যে ১ কোটি ৮১ লাখই নির্যাতনের শিকার। নির্যাতিত এসব নারীকে তাদের চিকিৎসা, সালিশ, আইন- আদালতের ব্যয়, কর্মদিবস অপচয় ও বাস্তচ্যুতির কারণে বছরে প্রায় ৩৪৩ কোটি টাকা ব্যয় করতে হয়। যে নারী অত্যাচারের শিকার, তার বাবা, ভাই বা অন্যান্য পুরুষ আত্মীয়রাও এর ফলে সরাসরি অথবা পরোক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সকলে সমন্বিত প্রয়াসে নারী নির্যাতন ও সহিংসতা নির্মুলকরণ সম্ভব।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় দিনাজপুর সদরের ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারে নারী নির্যাতন নির্মুলকরণে আন্তর্জাতিক প্রচারাভিযান পক্ষ’১৩ (২৫ নভেম্বর-১০ ডিসেম্বর) উপলক্ষে ব্র্যাক সদর আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচী শেষে এক আলোচনা সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন। দিনাজপুর জেলা ব্র্যাক প্রতিনিধি মোঃ মহসিন আলী সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক ছিলেন ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারের ইনচার্জ একেএম শাহ আলম। সিনিয়র জেলা ব্যবস্থাপক (ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচী)  হারুন-অর রশিদের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক (দাবি) দিনাজপুর-১ মোঃ আনোয়ার উদ্দিন, সিনিয়র ট্রেইনার (জেন্ডার ) বিএলসি মোঃ মোস্তফা কামাল, ফ্যাকাল্টি মেম্বার (বিএলসি) মারুফা পারভীন, ট্রেইনার (বিইপি) বিএলসি শাহানা পারভীন, ট্রেইনার জেন্ডার (বিএলসি) ফারজানা ববি, সার্ভিস ম্যানেজার (বিএলসি) মোঃ রাহাত আলী, সহকারী ম্যানেজার (এইচআর) মোঃ জিয়াউর রহমান, সার্ভিস ম্যানেজার (বিএলসি-২) পারভীন আক্তার, আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক (প্রগতি) মোঃ কামাল হোসেন, ঠাকুরগাঁও ব্র্যাকের মনিটর আঃ সালাম প্রমুখ। আলোচনা সভার পুর্বে ব্র্যাক লার্নিং ক্যাম্পাসে উপস্থিত নারী ও পুরুষের সমন্বয়ে একটি মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email