মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৩ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে হামলার শিকার ছাত্র সাফিঃ থানায় এজাহার দায়ের

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুর শহরে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে হামলার শিকার হয়ে ছাত্র সাফি কোতয়ালী থানায় এজাহার দায়ের করেছে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর শহরের উপশহরস্থ ৫নং ব­কের বাসিন্দা এনামুল হকের পুত্র কেবিএম কলেজ’র ছাত্র সাফিউল হক সাফি লিখিত অভিযোগ করে যে, শহরের ষষ্টীতলা (লাইনপাড়) এলাকার ইয়ার হোসেনের পুত্র সাকিল ১ হাজার টাকা ধার নেয় পরিশোধ করার কথা বলে। গত ৫ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টায় সাকিল উক্ত টাকা পরিশোধের জন্য উপশহরস্থ  ৬নং ব­কের নুর মোহাম্মদ’র পুত্র ও তার দুলাভাই সাজু মিয়ার বাসায় ডেকে নেয়। কিন্তু ডেকে নিয়ে সাকিল, তার বন্ধু ষষ্টীতলা (লাইন পাড়) এলাকার কবির হোসেন’র পুত্র জীবন ও দুলাভাই কিসের টাকা পাইশ বলে সাফিকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে সজোরে মাথায় আঘাত করে বলে এজাহারে উলে­খ করা হয়েছে। সাকিলের দুলাভাই সাজু মিয়া সাফির বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে আক্রমণ করে বলে এজাহারে উলে­খ করা হয়েছে। সেইসাথে সাকিলের বন্ধু জীব লোহার রড দিয়ে মুখে সজোরে আঘাত করলে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। এজাহারে আরও উলে­খ করা হয় যে, সাজু মিয়া সাফির গলা চিপে ধরলে তার নিঃশ্বাস বন্ধ হওয়ার উপক্রম হলে মাটিতে পড়ে যায়। পরক্ষণে সাজু  পিস্তল দিয়ে আবার গুলি করতে চাইলে সাফি জীবন বাচার জন্য কাকুতি-মিনতি করে বলে এজাহারে উলে­খ রয়েছে। স্বাক্ষী আনোয়ার, সুজন ও টুটুল ঘটনাস্থলে পৌছলে সাফিকে তার বাসায় নিয়ে যায়। সাফির বড়ভাই সিকিৎসার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেল কর্তব্যরত চিকিৎসক ঠোটের ফাটা অংশে তিনটি সেলাই দেয় বলে সাফি এজাহারে উলে­খ করেছে। এ ব্যাপারে আসামীগণের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলতাফ হোসেনের নিকট অনুরোধ জানিয়েছে সাফি। কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এজাহারটি ধারা ৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৫০৬/১১৪ দন্ডবিধি আইনে মামলা রুজু করেন। মামলা নং-০৬, তারিখ ০৫/০৩/১৪ইং।