শনিবার ২৫ মার্চ ২০২৩ ১১ই চৈত্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে ৠালি ও আলোচনা সভা

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি : “নিরাপদ পুষ্টিকর খাবার-সুস্থ জীবনের অঙ্গীকার” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা দেশের ন্যায় দিনাজপুরে পালিত হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস৷

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) দিনাজপুর শিশু একাডেমী মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়৷ দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. সুলতান মো. শামসুজ্জামান’র সভাপতিত্বে আােচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি) মো. তৌফিক ইমাম৷ বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পরিবার-পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা. মো. দিদারুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাক্তন উপ-পরিচালক ডা. মোঃ শহিদুলল্লাহ, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আব্দুল হান্নান৷ মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতলের সিনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন) ডা. মোঃ ওয়াহেদুল হক৷ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মো. সাইফুল ইসলাম ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মাসতুরা বেগম৷

প্রধান অতিথি তৌফিক ইমাম বলেন, প্রতিবছর ৭ এপ্রিল বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৯৪টি দেশ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালন করে থাকে৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, খাদ্য সমস্যা এমন একটি সমস্যা যা কখনো কখনো আঞ্চলিক সমস্যা হতে বিশ্ব ব্যবস্থায় জরুরী অবস্থার সৃষ্টি করতে পারে৷ তাই আমাদের উচিত নতুন প্রজন্মকে সুস্থ-সবল ও মেধা সম্পন্ন করে গড়ে তোলা৷ যাতে করে ২০২১ সালের মধ্যে আমরা ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সুস্থ-সবল মেধা সম্পন্ন বাংলাদেশ গড়তে পারি৷

এর আগে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে ও সরকারী-বেসরকারী সংস্থার সহযোগিতায় সিভিল সার্জন অফিস এক বর্ণাঢ্য ৠালী বের করা হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিশু একাডেমী প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়৷ ৠালির নেতৃত্ব দেন প্রধান অতিথি দিনাজপুর জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী ও বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন৷ ৠালিতে দিনাজপুর নার্সিং ইনস্টিটিউট, পরিবার-পরিকল্পনা বিভাগ, ব্র্র্যাক, পল্লীশ্রী, কাঞ্চন সমিতি, এফপিএবি, মেরিস্টপ, আরডিআরএস, কারিতাস, লাইট হাউস, আলোহা, ওয়ার্ল্ড ভিশন, এসসিডিএফ, অনন্যা সংস্থা, উদ্যোগ, ওভার স্কাউট, ল্যাম্ব, আরএস স্টপ, আপোষ, কেয়ার বাংলাদেশ, অনুঘটকসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করে৷