বৃহস্পতিবার ১১ অগাস্ট ২০২২ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে বেসরকারী শিক্ষকদের ৭ দফা দাবীতে শহরে মিছিল ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

দিনাজপুর প্রতিনিধি: বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের জরুরী ৭ দফা দাবী পুরণের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক সাফল্যে অগ্রদূত প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর সদর উপজেলা শাখার স্মারকলিপি প্রদান।

গতকাল বুধবার ৭ দফা দাবীতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর সদর উপজেলা শাখা শহরে মিছিল ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রহমান এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর সদর উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল হামিদ ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসউদ আলম স্বাক্ষরিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাবর প্রেরিত স্মারকলিপিতে বলা হয় বিগত বছরগুলোতে আপনার কর্মকুশল হাতের স্পর্শে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার ব্যাপক মানোন্নয়ন ঘটেছে। স্কুলে-স্কুলে কম্পিউটার, প্রজেক্টর, ল্যাপটপ ও কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করে আপনি শিক্ষা ব্যবস্থায় ডিজিটাল যুগের প্রর্বতন করেছেন। আপনার শাসনামলেই বাংলাদেশ প্রথম জাতীয় শিক্ষানীতি প্রনীত হয়েছে। বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার আপনার স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। আপনি তা উপলদ্ধি করেছেন। সে জন্যই আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার ব্যাপক প্রসার ঘটেছে। শিক্ষা ব্যবস্থা মুল চালিকা শক্তি দেশের বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীবৃন্দ আপনার  আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে শিক্ষার মানোন্নয়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছে। তাই শিক্ষক-কর্মচারীদের জীবনমান উন্নয়ন  এবং শিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিরাজিত বেশ কিছু সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর সদর উপজেলা শাখা আপনার সমীপে ৭ দফা দাবী উপস্থাপন করছে।  দাবীগুলি হলঃ ১। শিক্ষা ব্যবস্থায় জাতীয়করণের লক্ষ্যে শিক্ষানীতি- ২০১০ দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে। ২। সরকারী শিক্ষক-কর্মচারীদের ন্যায় পদ মর্যাদাসহ বেতন স্কেল, বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট, বাড়ী ভাড়া, উৎসব ভাতা, চিকিৎসা ভাতা ও টাইমস্কেল প্রদান করতে হবে। ৩। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অনুরূপ বেসরকারী শিক্ষকদের চাকুরীর বয়স ৬৫ বছরে উন্নীত করতে হবে এবং অবসর শেষে এক বছরের মধ্যে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাষ্টের টাকা প্রদান করতে হবে। ৪। শিক্ষার মানোন্নয়ন ও শিক্ষা প্রসারে প্রয়োজনীয় অবকাঠামোসহ কম্পিউটার ল্যাব, বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতী, গ্রন্থাগারের জন্য পর্যাপ্ত বই, শিক্ষোপকরণ ও গবেষনা সরঞ্জামাদীর ব্যবস্থা করতে হবে। ৫। অবিলম্বে শিক্ষা আইন -২০১৩ বাস্তবায়নসহ ২০১০ এর জনবল কাঠামো সংস্কার, অনুমোদিত শাখায় নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষকদের এমপিওভুক্তিকরণ এবং কর্মচারীদের চাকুরীবিধি দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে। ৬। বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক নিয়োগের জন্য পৃথক শিক্ষা সার্ভিস কমিশন গঠন, স্বতন্ত্র বেতন স্কেল এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠা করতে হবে। ৭। একাডেমিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত করণসহ চারু ও কারুকলা এবং কর্মমূখী শিক্ষা বিষয়ে পদ সৃষ্টি করতে হবে। স্বারকলিপি প্রদানকালে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মোঃ সামিদুর রহমান, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ ফজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাতলুবুল মামুনসহ অন্যান্য নেতৃবৃ্ন্দ উপস্থিত ছিলেন।

করেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email