রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে মৎস্যজীবীলীগের সাধারণ সম্পাদককে মারধর করায় থানায় এজাহার দায়ের

স্টাফ রিপোর্টারঃ

দিনাজপুর সদরে মৎস্যজীবীলীগের সাধারণ সম্পাদককে মারধর করার ঘটনায় কোতয়ালী থানায় এজাহার দায়ের হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর সদর উপজেলার ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়ন মৎস্যজীবীলীগের সাধারণ সম্পাদক আববাস আলী পূর্ব শত্রুতার জের ও সরকারী পুকুর লীজ নিয়ে দরখাস্ত প্রদানকে কেন্দ্র করে ১২ জুলাই শনিবার মারধরের শিকার হয়ে কোতয়ালী থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। আববাস আলী এজাহারে উল্লেখ করেছেন, সদর উপজেলার ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের মৃত আইনুদ্দিনের পুত্র আব্দুস সালাম (৩৮), মামুন (২৬), আবু সাঈদ (৩৬), মৃত খলিল উদ্দিনের পুত্র রাহেন (৫৫), আব্দুস সাত্তারের পুত্র রনি (২৪), মৃত রোস্তম আলীর পুত্র আনিছুর রহমান (৪০),মৃত হবিবর রহমানের পুত্র আব্দুস সাত্তার (৪৫), মৃত রোস্তম আলীর পুত্র ইয়াছিন (৩৫), ওবাইদুর রহমান (৩৮), মৃত তাজমুল হকের পুত্র শাহিন (৩৫), রাহেনের পুত্র রাসেদ (২৯) ও সালেউর রহমানের পুত্র সিদ্দিকুর (৪৩) শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সৈয়দপুর পানুয়াপাড়া নামক এলাকায় মোটরসাইকেল আটকিয়ে উক্ত মারধরের ঘটনা ঘটায়। তিনি এজাহারে আরও উল্লেখ করেছেন যে, ঘটনাস্থলে উপরোক্ত নামধারীরা দলবদ্ধ হয়ে হাতে ধারালো হাসুয়া, রামদা, চাকু, ছোরা, লাঠি, লোহার পাইপ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে তাকে আঘাত করলে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে গুরুতর জখম হলেও প্রাণে বেচে যান আববাস আলী। এছাড়াও ঘটনাস্থলে উপরোক্ত নামধারী দুর্বৃত্তরা এজাহারকারীর মোটরসাইকেলের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে এবং প্যান্টের পকেট হতে ২৫ হাজার ৭ শত টাকা জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে গ্রামের লোকজন আববাস আলীকে উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। এজাহারকারী আববাস আলী উপরোক্ত নামধারী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানায় গত ০৮/০৭/১৪ইং তারিখে একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। যার নং-৪০৫। এজাহারকারী সদর উপজেলার ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়ন মৎস্যজীবীলীগের সাধারণ সম্পাদক আববাস আলী ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিকট উপরোক্ত এজাহারভূক্ত নামধারী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবী জানিয়েছেন।

 

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email