বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা মামলার চার্জশিট দাখিল

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরে কর্নাইয়ে সংখ্যালঘু নির্যাতন, ভোট কেন্দ্র ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে দায়ের করা মামলায় দিনাজপুর সদর উপজেলার চেহেলগাজী ইউপি সদস্য নাজির হোসেনকে প্রধান আসামী করে ৭৫ জন বিএনপি-জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৪০০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ।

বুধবার কোতয়ালী থানা পুলিশ আদালতে এই মামলার চার্জশিট দাখিল করে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলতাফ হোসেন জানান, দ্রুত বিচার আইনে দায়ের করা মামলার তদমত্মকারী কর্মকর্তা এসআই আনিসুজ্জামান ৭৫ জন আসামির নাম উল্লেখ সহ ৪০০ জনের বিরম্নদ্ধে এ চার্জশিট পেশ করেন আদালতে। দ্রুত বিচার আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল হক চৌধুরী চার্জশিটের উপর শুনানি শেষে আদেশ দিবেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, গত ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সদর উপজেলার চেহেলগাজী ইউনিয়নের কর্ণাই প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর (নৌকা মার্কা) এজেন্ট হিসেবে কর্ণাই গ্রামের ফজলুল হকের স্ত্রী পারুল বেগম পোলিং এজেন্টের দায়িত্বে ছিলেন। ওই দিন ভোট চলাকালীন সময়ে বিএনপি-জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের হুমকি প্রদর্শন করে। এর মধ্যে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট সমাপ্তি হয়।

ভোটদানে বিরোধীতাকারীরা পুনরায় সমবেত হয়ে বিকেল ৫টা থেকে পারুলের বাড়িসহ কর্ণাই মোড়ে ব্যবসায়ীদের দোকান ও সংখ্যালঘুদের ঘর-বাড়িতে লুটপাট ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ ও নির্যাতন করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনিসুজ্জামান তদন্ত করে ৭৫ জন আসামির বিরুদ্ধে সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগের সত্যতা পায়। ফলে আদালতে চার্জশিট পেশ করেন। আসামিদের মধ্যে ১১ জনকে গ্রেফতার করা হলেও ৬৪ জন এখনও পলাতক রয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলা থেকে ৯ জন আসামির নাম বাদ দেয়া হয়।

 

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email