মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে সাবেক সেনা প্রধান মাহবুবুর রহমানের বোন জিনাত আরার ২টি হাত ভেঙ্গে দিয়েছে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ গত ২৯ অক্টোবর ১৮ দলীয় ঐক্যজোটের হরতাল চলাকালিন সময় দিনাজপুরের বিরল উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক সেনা প্রধান লেঃ জেঃ (অবঃ) মাহবুবুল রহমানের বোন মিসেস জিনাত আরা (৫৫)কে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা অনামানবিক ভাবে প্রহার করে ২টি হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। তাকে গুরম্নতর অবস্থায় দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এঘটনায় জেলা বিএনপিসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন ও বিক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়, হরতাল চলাকালিন সময় বিরল উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি মিসেস জিনাত আরা একটি মিছিল শেষে কার্যালয়ে ফিরার সময় আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসহাক আলীর নেতৃত্বে তার অফিস থেকে নেতাকর্মীদের সাথে লাঠিসোঠা নিয়ে মিছিলে হামলা করে। সময় মিছিলকারীদের হাত থেকে অন্যান্য মহিলা কর্মীদের রক্ষা করতে গেলে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা জিনাত আরাকে অমানবিক ভাবে মারধর করতে থাকে। একসময় সন্ত্রাসীরা জিনাত আরার ২টি হাতই ভেঙ্গে দেয়। জিনাত আরা মাটিতে লুটিয়ে পড়লে অন্যান্য নেতাকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে বিরল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে দিনাজপুর শহরের বালুয়াডাঙ্গা বাস ভবনে নিয়ে আসে। পরে খবর পেয়ে জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মুকুর চৌধুরী, জেলা যুবদলের আহাবায়ক জাহাঙ্গীর আলম জিনাত আরার বারীতে ছুটে যায়। তার অবস্থা গুরম্নতর দেখে তাকে দ্রম্নত দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দিনাজপুর রাজনৈতিক যে কোন কর্মসূচীতে এধরনের মহিলা পেটানোর ন্যাক্কার জনক কাজ কখনো ঘটেনি। এবারই বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগ নজির স্থাপন করেছে। দিনাজপুরের সর্বস্থরে এবং সর্বমহলে মহিলাকে অমানবিক মারধর করার ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে। খোদ আওয়ামী লীগেও এনিয়ে ব্যাপক সমালোচনা ঝড় উঠেছে। তবে গতকাল বুধবারও বিরল উপজেলায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল। আওয়ামী লীগের একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ইসহাক আলী অতি উৎসাহিত হয়ে খালিদ মাহমুম চৌধুরীকে খুশি করতে এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। কিন্তু হয়েছে উল্টোটা। এতে খালিদ মাহমুদ চৌধুরীরই ক্ষিত হয়েছে। আওয়ামী লীগের উস্কানী মূলক কর্মকান্ডে এলাকায় বিক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। উত্তেজিত হয়ে উঠেছে সাধারন জনতা। আওয়ামী লগগের বিরম্নদ্ধে মামলা না হয়ে উল্টো বিএনপি ও মহিলা দলের নেতাকর্মদদের বিরম্নদ্ধেই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email