বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে ৬৭২টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৪৮৬টি ঝুঁকিপূর্ণ

bpদিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরে উদ্বেগ আর উৎকন্ঠার মধ্যে আজ ৫ জানুয়ারি রোববার অনুষ্ঠিত হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ইতিমধ্যে নির্বাচনের সকল প্রস্ত্ততি সম্পন্ন করা হয়েছে। এ নির্বাচনে জেলার ১৬ লাখ ৯১ হাজার ৬৯৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

দিনাজপুরের ৬টি আসনের মধ্যে ৫টিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দিনাজপুর-২ (বিরল-বোচাগঞ্জ) আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় খলিদ মাহমুদ চৌধুরী নির্বাচিত হয়েছেন। বাকী ১১টি উপজেলার সমন্বয়ে গঠিত ৫টি সংসদীয় আসনে ভোট গ্রহণ করা হবে। ৫টি আসনে আওয়ামী লীগ ৫ জন ও ওয়ার্কার্স পার্টির ৫ জন করে মোট ১০জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এতে ভোট প্রদান করবেন ১৬ লাখ ৯১ হাজার ৬৯৩ জন ভোটার।

দিনাজপুরের ৫টি সংসদীয় আসনের ৬৭২টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৪৮৬টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে প্রশাসন হয়েছে। ভোট গ্রহণের জন্য ১০ হাজার ৯০৫ জন কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করবেন। আইন শৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত থাকবেন ১৭ হাজার ৭৩৪ জন পুলিশ, আনসার-ভিডিপির সদস্য। থাকবেন ৪ হাজার ৪৮০ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট। এছাড়া র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা সার্বক্ষনিক টহল দিবেন। সেনা বাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। নির্বাচনের যাবতীয় সামগ্রী ১১টি উপজেলায়  পৌছে গেছে।

পুলিশ ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে জেলার ৬৭২টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৪৮৬টি  কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আর ঝুঁকিহীন ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৮৬টি। বেশীভাগ ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় নির্বাচনের সাথে সংশিলষ্ট কর্মকর্তারা শংকার মধ্যে রয়েছেন।

দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের ১২৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ৯৮টি ও ঝুঁকিহীন ৫৫টি কেন্দ্র। দিনাজপুর-৩ (সদর) আসনের ১২৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১৪টি ঝুঁকিপূর্ণ ও মাত্র ১৪টি ঝুঁকিহীন কেন্দ্র। দিনাজপুর-৪ (খানসামা-চিরিরবন্দর) আসনের ১২০টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮১টি ঝুঁকিপূর্ণ  ও ৩৯টি কেন্দ্র ঝুঁকিহীন। দিনাজপুর-৫ (পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী) আসনের ১৩৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৯৯টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ৪০টি ঝুঁকিহীন কেন্দ্র এবং দিনাজপুর-৬ (বিরামপুর-নবাবগঞ্জ-ঘোড়াঘাট ও হাকিমপুর) আসনের ১৬২টি  কেন্দ্রের মধ্যে ১২৪টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ আর ৩৮টি কেন্দ্র ঝুঁকিহীন বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

ভোট গ্রহণের জন্য ১১টি উপজেলার ৫টি আসনের ৬৭২টি ভোট কেন্দ্রের ৩ হাজার ১১টি বুথে দায়িত্ব পালন করবেন ১০ হাজার ৯০৫ জন কর্মকর্তা। এদের মধ্যে ৬৭২ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৩ হাজার ৪১১ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও ৬ হাজার ৮২২ জন পোলিং অফিসার রয়েছেন।

দিনাজপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আশরাফুল আলম জানান, নির্বাচনের জন্য স্বচ্ছ ব্যালট বক্স, অমোচনীয় কালি, স্ট্যাম্প প্যাড, সীল এবং অন্যান্য সব উপকরল ১১টি উপজেলার সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে।

নির্বাচনের দিন নিরাপত্তায় ৬৭২টি ভোট কেন্দ্রের জন্য ১৩ হাজার ২৫৪ জন অস্ত্রধারী পুলিশ, লাঠিধারী পুরম্নষ ও মহিলা আনসার ভিডিপির সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। ঝুঁকিপূর্ণ প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ২ জন অস্ত্রধারী পুলিশ, ২ জন অস্ত্রধারী আনসার, ১০ জন পুরম্নষ আনসার ও ৬ জন মহিলা আনসারের সমন্বয় ২০ জন দায়িত্ব পালন করবেন। ৪৮৬টি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ৯ হাজার ৭২০ জন পুলিশ-আনসার নিয়োজিত থাকবেন। ঝুঁকিহীন প্রতিটি কেন্দ্রে ১ জন অস্ত্রধারী পুলিশ, ২ জন অস্ত্রধারী আনসার, ১০ জন পুরম্নষ আনসার ও ৬ জন মহিলা আনসার সমন্বয়ে ১৯ জনের নিরপত্তা দল দায়িত্বে থাকবেন।

জেলার ১৮৬টি ঝুঁকিহীন কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করবেন ৩ হাজার ৫৩৪ জন পুলিশ-আনসার সদস্য। ৩টি  কেন্দ্রের জন্য ১ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের অধীনে ২০ সদস্যের র‌্যাব, পুলিশ ও ভ্রাম্যমান বিজিবির ইউনিট দায়িত্ব পালন করবেন। ২২৪টি কেন্দ্রের ভ্রাম্যমান ইউনিটের জন্য ৪ হাজার ৪৮০ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email