শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর অবৈধভাবে গর্ভপাত ঘটানোর দায়ে চিকিৎসকসহ ২ জনের ৮ বছর করে কারাদন্ড

Jalদিনাজপুর প্রতিনিধি : অবৈধভাবে গর্ভপাত ঘটানোর দায়ে দিনাজপুর সদর হাসপাতালের গাইনী বিভাগের চিকিৎসক হজরত আলীসহ ২ জনের ৮ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছর করে সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-২ আদালতের বিচারক মাইনুল করীম গতকাল  মঙ্গলবার দুপুরে এই রায় ঘোষনা করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, দিনাজপুরের বোঁচাগঞ্জ উপজেলার রামপুরা গ্রামের আমিনুল ইসলামের কন্যা আনিসা বেগম-এর সাথে একই উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের নওয়াবউদ্দীনের পুত্র মোস্তাফিজার রহমানের প্রেম সম্পর্ক ছিলো। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মোস্তাফিজার তার সাথে অবৈধ দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে গর্ভবতী হয়ে পড়ে আনিসা বেগম।

গত ১৯৯৯ সালের ২২ এপ্রিল প্রেমিক মোস্তাফিজুর রহমান বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দিনাজপুর শহরে এনে দিনাজপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ হজরত আলীর মাধ্যমে আনিসা বেগমের ৫ মাসের সন্তানকে জোরপুর্বক গর্ভপাত ঘটায়।

অবৈধভাবে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে আনিসা বেগমের পিতা আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে গত ১৯৯৯ সালের ৩০ এপ্রিল বোঁচাগঞ্জ থানায় ডাঃ হজরত আলী ও প্রেমিক মোস্তাফিজার রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

মামলার স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে বিচারক গতকাল মঙ্গলবার এই রায় ঘোষনা করে ডাঃ হজরত আলী ও মোস্তাফিজার রহমানকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।