শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর আইন কলেজ’র অফিস সহকারী রোকসানা পারভীন ও অফিস পিয়ন মাহবুব’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

আব্দুর রাজ্জাক:

দিনাজপুর আইন কলেজ’র অফিস সহকারী রোকসানা পারভীন ও অফিস পিয়ন মাহবুব’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ করেছে কলেজের শিক্ষার্থীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রতিবেদককে মৌখিক অভিযোগ করেন, সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে রশিদ ছাড়া অন্যায় ভাবে অর্থ আদায়, ছাত্র ছাত্রীদের গুরুত্বপূর্ণ কাগজে এবং অফিসের গুরুত্বপূর্ণ কাগজে জাল স্বাক্ষর প্রদান, বিভিন্নভাবে হয়রানী করে আসছে দিনাজপুর আইন কলেজের অফিস সহকারী রোকসানা পারভীন ও অফিস পিয়ন মাহবুব হোসেন। তারা আরও জানান, ১৯ জুলাই শনিবার ও ২০ জুলাই রবিবার শেষ বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের কাছ থেকে প্রশংসাপত্র, নম্বরপত্র ও প্রফেসনাল সনদপত্র বাবদ যথাক্রমে ১’শ টাকা করে ৩’শ টাকা বিনা রশিদে গ্রহণ করেন অফিস সহকারী ও অফিস পিয়ন। এব্যাপারে ২০ জুলাই রবিবার বিকেলে প্রতিবেদক সরেজমিনে কলেজে প্রবেশ করলে ঘটনার সত্যতা খুজে পায়। সরেজমিনে দেখা যায়, অফিস সহকারী রোকসানা পারভীন বিনা রশিদে টাকা গ্রহন করছেন। এব্যাপারে সনদপত্র গ্রহনের জন্য আসা শেষ বর্ষের ছাত্র পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া উপজেলার হায়দার আলী জানান, অফিস সহকারী কি কারণে উক্ত টাকা গ্রহণ করছেন বিনা রশিদে বোধগম্য হচ্ছে না। একই অভিযোগ করেন কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্র পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার মোস্তাফিজুর রহমান।

এ ব্যাপারে অফিস সহকারি রোকসানা পারভীন প্রতিবেদককে জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় হতে উক্ত কাগজপত্র নিয়ে আসতে হয়, তাই টাকা নিচ্ছি। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ বিনা রশিদে কেন টাকা নেয়া হ&&চছ প্রশ্ন করলে, তিনি পরক্ষণে ছাত্রদের রশিদের মাধ্যমে টাকা নেয়া শুরু করেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পর কলেজে আগত শিক্ষার্থীরা টাকা নেয়ার প্রতিবাদ জানালে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলে ২০/২৫জন ছাত্র ছাত্রীকে টাকা ছাড়াই সনদপত্র প্রদান করা হয়। এব্যাপারে সাধারণ ছাত্র ছাত্রীরা সকল সমস্যা সমাধানে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email