রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে সনাকে’র ইয়েস গ্রুপের সচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ।

বেলাল উদ্দিন,স্টাফ রিপোর্টারঃ ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), দিনাজপুরের ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা ৮ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে ১২.৩০ টা পর্যমত্ম দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভ্রাম্যমান এআই ডেস্ক স্থাপন এবং পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন কালে ব্যাপক অনিয়ম ধরা পড়ে। ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা জানায় হাসপাতাল চত্ত্বরে যত্রতত্র মোটরসাইকেল ও ইজিবাইক পার্কিং হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা প্রদানে বাধা সৃষ্টি করে বলে জানায় অনেক রোগী ও তাদের সাথে আসা অভিভাবকরা। এই মোটরসাইকেল বেশিরভাগ হাসপালের স্টাফদের বলে জানা যায়। অন্যদিকে বহির্বিভাগে টিকিটের দাম ৬ টাকা হলেও খুচরা টাকা নাই অজুহাতে রোগীদের কাছ থেকে টিকিট প্রতি ৮ হতে ১০ টাকা গ্রহণ করে। কিন্তু রাজস্বখাতে গিয়ে ৬ টাকাই জমা হয়, বাকী টাকা কার পকেটে যায় এটার হদিস পাওয়া যায় নি। তারা আরও জানান শৌচাগাগুলো অপরিস্কার অপরিচ্ছন্ন, কতগুলো শৌচাগারে ভিতর থেকে বন্ধ করার ছিটকিনী নেই। খাবারের পরিমান যথেষ্ট হলেও রান্নার মান ভাল না থাকায় রোগীরা তা খেতে পারে না। ফলে তাদের বাহির হতে খাবার কিনে খেতে হয়। অন্যদিকে সেবিকাদের সেবা ও ডাক্তারদের সেবা সন্তোষজনক বলে জানায় রোগীরা। ঔষধের সরবরাহে কোন ঘাটতি নেই। এ ব্যাপারে ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা আবাসিক মেডিকেল অফিসারের সঙ্গে উপোরক্ত অনিয়মের কথা বললে তিনি জানান, পাকিং এর ব্যাপারে তিনি খুব তাড়াতাড়ি ব্যবস্থা গ্রহন করবেন ও বহির্বিভাগের টিকিটের বাড়তি টাকা কেউ যদি নেয়, এরূপ অভিযোগ পেলে তিনি তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে আশ্বাস দেন। পরিদর্শনের পূর্বে রোগীদের সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

 

Spread the love