বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট আয়োজিত সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশ

এম.আর মিজান ॥ “সন্ত্রাস- জঙ্গিবাদ নিপাত যাক সবার জীবন নিরাপদ থাক” এ শ্লোগানকে সামনে রেখে দিনাজপুর পুলিশ সুপার মোঃ হামিদুল আলম বলেন,  সদরের ২নং সুন্দরবন ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত জঙ্গীবাদ সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যর বিরুদ্ধে গণসচেতনতার বৃদ্ধির লক্ষ্যে একটি র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
২৯ আগস্ট সোমবার ২নং সুন্দরবন ইউনিয়ন কার্যালয় জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে গণসচেতনতা র‌্যালী শেষে আলোচনা সভায় ২নং সুন্দরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অশোক কুমার রায়ের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ তার বক্তব্যে বলেন, যারা ধর্মের নাম ব্যবহার ও ধর্মের নামে অপব্যাখ্যা করে জঙ্গী হামলা করে মানুষ হত্যা করে তারা দেশ ও জাতির শত্রু তাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এ দেশ যখন এ দেশ এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক সেই সময়ে একটি চক্র দেশকে অস্থিতিশীল ও দেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে জঙ্গীবাদী তৎপরতা চালাচ্ছে। অন্যায়ভাবে বোমা মেরে নিরীহ মানুষকে খুন করছে। সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে জামাত-বিএনপি ধর্মের দোহাই দিয়ে দেশী বিদেশী প্রভুদের ইঙ্গিতে দেশে নাশকতা চালাচ্ছে। দেশের মানুষ জেগে উঠেছে, জাগ্রত হয়েছে, দুস্কৃতিকারী ও জেএমবিদের জঙ্গী, সন্ত্রাসী তৎপরতা প্রতিহত করতে সবাই ঐক্যবদ্ধ ও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।
জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে গণসচেতনতা র‌্যালী আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর সার্কেল হাসানুজ্জামান মোল্লা, ফুলবন ফাজিল ডিগ্রী মাদরাসার অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল গফুর, দিনাজপুর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ রেদওয়ানুর রহিম, সাংবাদিক হাজী মোঃ রবিউল ইসলাম, ইছামতি মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মোঃ জোবায়দুর রহমান প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ২নং সুন্দুরবন ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক নব কান্ত দাস।

Spread the love