শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর শহরে শব্দদূষণ বিপদজ্জনক পর্যায়ে।গুরুত্ব নেই পৌর কর্তৃপক্ষের

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর শহরে শব্দদূষণ বিপদজ্জনক পর্যায়ে পৌঁছেছে।  এ ব্যাপারে পৌর কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কোন গুরুত্ব না দেয়ায় এই শব্দদূষনের মাত্রা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। ফলে শহরবাসি অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন।

দিনাজপুর জেলা শহরে মাইকিং, গাড়ীর হর্ণ আর ভটভটি, নসিমন-করিমন চলাচলের বিকট শব্দে সৃষ্টি করেছে তীব্র শব্দদূষণ। সকাল থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সভা-সমাবেশ, বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টারে ভর্তি, বিভিন্ন পন্যের বিজ্ঞাপন প্রচারসহ আরো অনেক কিছুর প্রচারনা। সব কিছুই চলে মাইক ব্যবহার করে। কোন ঘটার সাথে সাথে শহরে পাইকিং বের হয়ে যায়। এই মাইকিংয়ের তীব্র আওয়াজে অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন শহরবাসি। মাইকিংয়ের বিকট শব্দ একজন সুস্থ মানুষকে অসুস্থ তোলার জন্য যতেষ্ট।

মানুষের কানের সহনীয় গ্রহনযোগ্য মাত্রা সর্বোচ্চ ৪০ ডিসিবল। অথচ দিনাজপুর শহরে মাইকের যে আওয়াজ তা সহনীয় মাত্রার চেয়ে দ্বিগুনের বেশী। এ শহরে বিবিধ পণ্যের এমনকি গরম্নর-মহিষের গোসত, মুরগি বেচাকেনার জন্যও মাইক ব্যবহার করা হয়। তাও আবার অতি উচ্চমাত্রায়। গানের সিডি বিক্রির দোকানে অতি উচ্চ মাত্রায় সার্বক্ষণিক গান বাজানো হয়। মোটরসাইকেল, বাস-ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহনের হর্ণ বাজে বিকট শব্দে। এমনকি হাসপাতাল বা ক্লিনিকের কাছেও মাইকিং করা হয়। সকাল ১০টা হতে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে এই মাইকিং। এমনকি অনেক সময় মধ্য রাতেও মাইকিং করা হয়। চলে ট্রাক, টা্রক্টরসহ অন্যান্য যানবাহন।

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম জানান, শহরে শব্দদূষণ রোধে শিঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অব্যাহত তীব্র এ শব্দদূষণ দিনাজপুর শহরে সারাক্ষণ লেগেই আছে। এর থেকে শহরবাসি পরিত্রান পেতে চায়। বিপদজ্জনক শব্দদূষণ হতে পৌর মেয়র, জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা নেবেন এমনটাই আশা করছেন পৌরবাসি।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email