মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

আজ ৮ মার্চ ২০১৫,আর্ন্তজাতিক নারী দিবস। ১৮৫৭ সালের এইদিনে মার্কিন যুক্তরাষ্টের পোশাক কারখানার নারী শ্রমিকদের সেই বরীত্বগাথা, যারা মজুরি বৃদ্ধি ও শ্রম সময় ১৬ ঘন্টা থেকে ৮ ঘন্টা নির্ধারণ ও কর্মপরিবেশ উন্নয়নের দাবিতে আন্দোলন করেছিলেন। ১৯০৮ সালের একই দিনে কর্মঘন্টা হ্রাস,উন্নত কর্মপরিবেশ এবং ভোটাধিকারের দাবিতে নিউইর্য়ক শহরের নারীশ্রমিকেরা আন্দোলনে নামে। ১৯১০ সালে সমাজতান্ত্রিক নেত্রী কারা জেৎকিন-এর প্রস্তাবক্রমে ৮ মার্চকে ’নারী দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। জাতিসংঘ ১৯৭৫ সালে প্রথমবারের মতো ৮ মার্চকে আর্ন্তজাতিক নারীদিবস হিসেবে উদ্যাপন করে। এরপর থেকে জাতিসংঘভুক্ত প্রতিটি দেশে ৮ মার্চ আর্ন্তজাতিক নারীদিবস হিসেবে উদ্যাপিত হচ্ছে। এবারে সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি সহিংসতামুক্ত মানবিক রাজনীতি চাই, রাষ্ট্রের নীতিনির্ধারণী সকল পর্যায়ে নারী- পুরুষের সমঅংশীদারিত্ব চাই’ এই প্রতিপাদ্যের ভিত্তিতে দিবসটি পালন করছে। এই দিবসটি উপলে দিনাজপুর জেলার সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি বিকাল ৪ টায় নাট্য সমিতির সামনে এক মানববন্ধনের আয়োজন করেন। উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির যুগ্ম সচিব ড.মারুফা বেগম,কর্মজীবী নারীর পরিচালক এ্যাড.লিয়াকত আলী,বাষ্ট এর সমন্বয়কারী এ্যাড. সিরাজুম মুনিরা,সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট এর সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামালউদ্দীন বাচ্চু, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির যুগ্ম সচিব সফিকুল ইসলাম,অনন্যা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কানিজ ফাতেমা, মহুয়া হস্তশিল্পের পরিচালক নুরুননাহার,এসইউপিকের র্নিবাহী পরিচালক মোজাফর হোসেন, আমাদের থিয়েটারের পরিচালক তারেকুজামান তারেক। ঘোষনাপত্র পাঠ করেন সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মনোয়ারা সানু। মানববন্ধনে সভপতিত্ব করেন সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক আজাদী হাই। গণসংগীত পরিবেশন করেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী।

Spread the love