মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দেশে করোনায় আরও ৮৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২,৩৪১

সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৮৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১১ হাজার ৩৯৩ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ হাজার ৯২৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ২ হাজার ৩৪১ জন করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।  এ নিয়ে মোট করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৫৬ হাজার ৯৫৫ জন।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৭৮২ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৭৭ হাজার ১০১ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩৫৮ টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১২৩ টি, জিন এক্সপার্ট ৩৪টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ২০১ টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২৪ হাজার ৭২৩ টি। আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৮ হাজার ৯২৮ টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৪ লাখ ৪৮ হাজার ৬৫৮ টি। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৩৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৯ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৪৫ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫১ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৮৮ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৪৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ২২ জন, সিলেট বিভাগে ৫ জন। রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগে ৪ জন করে ৮ জন। রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে ২ জন করে ৪ জন। এছাড়া খুলনা বিভাগে ১ জন রয়েছেন। তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ৫২ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৩৩ জন, বাড়িতে ৩ জন মারা গেছেন। মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরে ঊর্ধ্বে ৫৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৫ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ২ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছেন। এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৫২৪ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৪৫১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন এক লাখ ২২ হাজার ৩৯৪ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ১ লাখ ২ হাজার ৯৬৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ৪২৭ জন। এর আগে গত ৭ এপ্রিল দেশে একদিনে সাত হাজার ৬২৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। যা দেশে  একদিনে করোনা শনাক্তে সর্বোচ্চ রেকর্ড। আর গত ৬ এপ্রিল একদিনে শনাক্ত হয়েছিল সাত হাজার ২১৩ জন। দেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email