শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করলেন দিনাজপুরের সন্তান কুয়েট ছাত্র হানিফ

Dinajইন্টারনেটের মাধ্যমে এন্ড্রোয়েড মোবাইলের সাহায্যে পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে বাড়ি বা প্রতিষ্টানের বিভিন্ন ইলেক্ট্রিক্যাল যন্ত্র সহজেই নিয়ন্ত্রন করার নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছেন খুলনা প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) ছাত্র হানিফ আলী সোহাগ। এটি মুলতঃ তার তৈরী একটি এন্ড্রোয়েড সফটওয়্যার যার নাম “হানিফ ওয়েব সিস্টেম” এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে।
এই প্রযুক্তিতে ব্যবহার করা হয়েছে মোবাইল, মাইক্রোকন্ট্রোলার, ব্লুটুত মডিউল ও রিলে। পরীক্ষামূলকভাবে নিজ বাড়িতে ইতিমধ্যে ৬টি বিদ্যুৎ লাইটের সুইচ মোবাইলের সাহায্যে নিয়ন্ত্রন করছেন। দিনাজপুর শহরের কালিতলার বাসিন্দা এ্যাডভোকেট সলিমুল্লাহ’র পুত্র কুয়েট এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র হানিফ আলী সোহাগ তার এই আবিষ্কার বিশ্বে প্রথম এমন দাবী করে জানান, তার এই সফটওয়্যারটিতে দুটি অংশ রয়েছে।
একটা হলো ব্যবহারকারী (user) অংশ এবং অপরটি হচ্ছে যন্ত্রের সাথে সংযুক্ত (device) অংশ। আর প্রতিটি অংশে নির্দিষ্ট পাসওয়ার্ড এবং ব্যবহারকারী নামের জন্য ব্যবস্থা রয়েছে। যখন সফটওয়্যারটির দুই অংশে সঠিক পাসওয়ার্ড এবং ব্যবহারকারীর নাম মিলে যাবে তখনই কেবলমাত্র সফটওয়্যারটি সক্রিয়ভাবে কাজ করবে। আর পাসওয়ার্ড এবং ব্যবহারকারী নাম পাওয়ার জন্য “হানিফ ওয়েব সিস্টেম” সফটওয়্যারটিতে রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা রয়েছে।
হানিফ আলী সোহাগ জানান, যখন সফটওয়্যারটি সঠিকভাবে দুই অংশে সংযুক্ত হবে তখন ব্যবহারী অংশ (vser part ) এ ব্যবহারকারী যন্ত্রের সাথে সংযুক্ত ইলেক্ট্রিক্যাল যন্ত্রের (লাইট, ফ্যান, ফ্রিজ, ওভেন ইত্যাদি) বর্তমান অবস্থা (চালু/বন্ধ) সহজেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে চেক করতে পারবে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে এবং সেখান থেকেই সুইচ চালু বা বন্ধ করতে পারবে।
ইলেক্ট্রিক্যাল যন্ত্র নির্ভুলভাবে নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব উল্লেখ করে হানিফ আলী সোহাগ আরো জানান, এই সফটওয়্যারটিতে অন লাইনে রেজিস্ট্রেশন এবং লগ-ইন ব্যবস্থা রয়েছে। এর ফলে একাধিক ব্যবহারকারী রেজিস্ট্রেশন করে প্রত্যেকে আলাদা আলাদাভাবে নিজেদের বিভিন্ন ইলেকিট্রক্যাল যন্ত্র নিয়ন্ত্রন করতে পারবে।
এটা শুধু এন্ড্রোয়েড মোবাইল দিয়ে নয়, যেকোন মোবাইল এবং কম্পিউটারের মাধ্যমেও সম্ভব বলে হানিফ দাবী করেন।
হানিফের এই প্রযুক্তির বিষয়ে হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালযের (হাবিপ্রবি) ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক মোঃ জামিল সুলতান জানান, তার জানা মতে এই প্রযুক্তি উদ্ভাবন এটিই প্রথম। হানিফের দাবী যদি সত্য হয় তবে এটি অবশ্যই আশ্চর্য্য আবিষ্কার।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email