মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নির্দলীয় সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্র মুক্তি পাবে : খালেদা জিয়া

1384012401বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, সংকট থেকে দেশ-জাতির মুক্তির জন্য, গণতন্ত্র ও জনগণের অধিকারের সুরক্ষা এবং শান্তি ও স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য আমরা আন্দোলন করছি। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সকল দলের অংশগ্রহণের ভিত্তিতে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ র্বিাচনের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর ও জনগণের পছন্দসই একটি সরকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমেই এ সংগ্রাম তার কাঙিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছবে। শান্তিপূর্ণ এই আন্দোলনে সকল দেশবাসীর সক্রিয় অংশগ্রহণ কামনা করেন তিনি।

লক্ষ্মীপুরে বিএনপির মিছিলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলি করা প্রসঙ্গে খালেদা জিয়া বলেন, আজ লক্ষ্মীপুরে যাদেরকে নিমর্মভাবে হত্যা করা হয়েছে এবং জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য যারা ইতোমধ্যে আত্মহুতি দিয়েছেন আমি সেই সকল শহীদদের  রূহের মাগফিরাত কামনা করছি। তাদের স্বজনদের প্রতি গভীর সহানুভ্থতি ও সমবেদনা জানাচ্ছি। আহত ও নির্যাতিত হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের প্রতি জানাচ্ছি আমার আন্তরিক সহমর্মিতা। অন্তর্ঘাতে যেসব নিরপরাধ নাগরিক প্রাণ দিয়েছেন, অসহ্য যন্ত্রণা সয়ে এখনো যারা চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাদের জন্য আবারো গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

জাতিসংঘের মহাসচিবের বিশেষ দূতের মধ্যেস্থতায় দেশবাসীর মধ্যে  নতুন আশার সঞ্চার হয়েছে বলে উল্লেখ করে বেগম জিয়া বলেন, আমি আশা করি, বাংলাদেশের  মানুষের প্রত্যাশাকে তারা বিবেচনায় নেবেন এবং একগুঁয়েমি প্রত্যাহার করে শান্তি ও সমঝোতার পথে এগুবেন।

সমঝোতার পথ প্রশস্ত করার জন্য সংলাপের পরিবেশ তৈরি করা খুবই অপরিহার্য। কিন্তু দুঃখের বিষয়, বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের এখনো মুক্তি দেয়া হয়নি, প্রত্যাহার করা হয়নি মিথ্যা মামলা। আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন এখনো প্রহসনের নির্বাচনের তফশীল স্থগিত করেনি। বিরোধী দলের অবরুদ্ধ অফিস ও বন্ধ সংবাদ মাধ্যমগুলো এখনো খুলে দেয়া হয়নি।  এখনো শান্তিপূর্ণ সমাবেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়নি। এখনো আন্দোলনকারীদের প্রাণসংহার ও রক্ত ঝরানো বন্ধ হয়নি। এই বিষয়গুলো বাস্তবায়ন করে সংলাপ ও সমঝোতার পথ প্রশস্ত করার জন্য আমি সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, বাংলাদেশে আজ গণতন্ত্রের নাম নিশানা মুছে দিয়ে চরম স্বৈরাচারী এক ফ্যাসিবাদী দুঃশাসন জগদ্দল পাথরের মতো জাতির ওপর চেপে বসেছে। স্বাধীন বিচার ব্যবস্থার স্বপ্ন বিলীন হয়ে গেছে। এর উপর জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস নষ্ট করে ফেলা হয়েছে।

বেগম খালেদা জিয়া বলেন, প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলাবাহিনীকে আজ দলীয় ক্যাডারের মতো ব্যবহারের করা হচ্ছে। জনজীবনে শান্তি ও স্বস্থি নিশ্চিত করার বদলে বিরোধীদল ও জনগণের প্রতিবাদ বিক্ষোভ ও আন্দোলন দমনই তাদেরকে সার্বক্ষণিক নিয়োজিত রাখা হয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email