সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া মাদকের স্বর্গ রাজ্যে ধংষের পথে যুব সমাজ

148বাংলাদেশের সর্ব উত্তরে সীমান্ত ঘেষা

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা মাদক রাজ্যে

পরিণত হয়েছে। মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীদের

দুরে কোথাও যেতে হয়না। সীমান্তের ওপার

হতে আসছে যুব সমাজের মরন বিষ মাদক।

হাত বাড়ালেই মাদকের দেখা মিলে। দু’এক

জায়গায় লুকোচুরি করে মাদক কারবার

চললেও প্রায়ই জায়গায় খোলামেলা

বেচাকেনা চলে। ধ্বংস হচ্ছে স্কুল কলেজ

পড়–য়া ছাত্র ছাত্রীরা। জেলাসহ উপজেলার

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আশংকা জনক হারে

মাদকাসক্তের সংখ্যা বড়ছে। বিশেষ করে

শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ার

প্রবনতা বেড়ে যাওয়ায় অভিভাবকরা

উদ্বিগ্ন। বর্তমানে, ছেলেদের পাশাপাশি

মেয়েরাও মাদকাসক্তের সাথে জড়িয়ে

পড়েছে।

শংশ্লিষ্ট সূত্র গুলো জানায়, পঞ্চগড়ে মাদক

ভয়াবহ এক সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত

হয়েছে। কিন্তু  প্রতিকারের বাস্তব সম্মত

তেমন কোন উদ্যোগ না থাকায় মাদক

ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে সর্বত্রই। পঞ্চগড়

জেলাসহ উপজেলার গ্রাম, গঞ্জ এ প্রায় সর্বত্র

হাত বাড়ালেই মাদক মিলে, শিক্ষার্থীরা

ছুটছে এ মরণ নেশা মাদকের পিছে। বাংলা

মদ, চোলাই মদ এর সাথে ২ যুগ ধরে যোগ

হয়েছে ফেন্সিডিল, ইয়াবা ও হেরোইন

এছাড়া নতুন নতুন হরেক রকমের বোতলে

নেশা পাওয়া যাচ্ছে। আর এসব খাচ্ছেন নেম্ন

থেকে উচ্চ পরিবারের শত শত শিক্ষার্থী।

এছাড়াও ধর্নাঢ্য ব্যবসায়ী শিল্পপতি,

প্রভাবশালী, রাজনৈতিক নেতাদের সন্তানরা

জড়িয়ে পড়ছে ওই সব নেশায়।

তবে বিজিবি ও পুলিশের মাদক বিরোধী

অভিযান চলছে। তবুও হাত বাড়ালে মাদক

পাওয়া যাচ্ছে। অবিজ্ঞ মহল মনে করেন

প্রতিটি অভিভাবক সচেতন হয়ে

ছেলে-মেয়েদের সঠিক তদারকী করলে

অনেকটা মাদকাসক্ত কমে যাবে

শিক্ষার্থীদের। মাদকের সাথে পাচার হয়ে

আসছে অস্ত্র। সমাজে বেড়ে গেছে নানা

অপকর্ম। অল্প বয়সে হাতে অস্ত্র পেয়ে উঠতি

বয়সের যুবকরা বিভিন্ন অসামাজিক কাজে

বেপরোয়া হয়ে উঠছে।

উপজেরায় মাদকাসক্ত কয়েকজন যুবককে

জেলা শহর থেকে বিভাগীয় শহরের

মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও নিরাময়

কেন্দ্রগুলোতে চিকিৎসার পর বাড়ি ফিরে

খারাপ সঙ্গের কারনে আবার মাদকাসক্ত হয়ে

পড়ছে। বিফলে চিকিৎসা সেবা, বাবা-মার

অক্লান্ত চেষ্টা, পরিশ্রম, বিলিন হচ্ছে আর্থিক

অবস্থা। অনেক সময় প্রশাসনের নাকের

ডগায় মাদক বেচা কেনা হলেও না দেখার

ভান করে এড়িয়ে যান তারা। মুলত মাদক

দুর করতে সকলের একান্ত প্রচেষ্টা দরকার

নইলে সমাজ থেকে মাদক দুর করা সম্ভব হয়ে

উঠবে না বলে সুধিমহলের অভিমত।