রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পঞ্চগড়ে পরকিয়ার জের ধরে দুই শিক্ষক বহিষ্কার

দিনাজপুর প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার হাজরাডাঙ্গা শহীদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে পরকিয়া প্রেমের কারণে  দুই শিক্ষককে সামায়িক বহিষ্কার করেছে কর্তৃপক্ষ। বহিষ্কৃত শিক্ষকরা হলেন ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রতন কুমার এবং সহকারী শিক্ষিকা পার্বতী রাণী।

গত বৃহস্পতিবার ওই দুই শিক্ষককে বহিষ্কারের দাবিতে সকল শিক্ষার্থীরা ক্লাশ ও পরীক্ষা  বর্জন করেছিল। শিক্ষার্থীদের চাপের মুখে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকরা শনিবার বিশেষ সভা আহ্বান করে বিতর্কিত ওই দুই শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কার করেন।
জানা যায়, গত কয়েক বছর থেকে হাজরাডাঙ্গা শহীদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রতন কুমার ও সহকারী শিক্ষিকা পার্বতী রাণী পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে অনৈতিক আচরন করে আসছিলেন। গত বছর এ বিষয়ে অভিযোগ উঠলে তাদেরকে সতর্ক করে দেয় ম্যানেজিং কমিটি। কিন্তু সম্প্রতি বিদ্যালয়ে ওই দুই শিক্ষক অপকর্ম করার সময় শিক্ষার্থীরা বিষয়টি দেখে ফেলে। গত বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শিক্ষার্থীরা ওই দুই শিক্ষককে বহিষ্কারের দাবিতে ক্লাশ ও পরীক্ষা বর্জন করে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের সামনে জড়ো হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম শনিবার ম্যানেজিং কমিটির সভা ডাকেন। সভায় শিক্ষার্থীদের দাবিকে গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে ওই দুই শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। এ সময় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব ওয়াজেদ আলীসহ ৭ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। । কমিটিকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবে বলে জানা গেছে ।
এ বিষয়ে সহকারী শিক্ষক রতন কুমার ও শিক্ষিকা পার্বতী রাণীর কাছে জানতে চাইলে তারা নিজেরা পরিস্থির শিকার বলে জানান।

হাজরাডাঙ্গা শহীদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম জানান, ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে এর আগেও বহু অভিযোগ উঠেছিল। আমরা প্রাথমিক ভাবে তাদের সতর্ক করেও দিয়েছি। কিন্তু এরপরও তারা বিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করে অপকর্ম করেছে। তাই বিদ্যালয়ের সুষ্ঠু পরিবেশের জন্য তাদের সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সেই সাথে তদন্ত কমিটিও গঠন করে দেয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলেই তাদের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

Spread the love