শনিবার ২ মার্চ ২০২৪ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পঞ্চগড়ে যুবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নৃসংশ ভাবে কুপিয়ে হত্যা: আহত ২ গ্রেফতার ১

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ে সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রবিউল ইসলাম (২৮) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে । পরিবারের সাথে ঈদ করতে এসে সন্ত্রাসীদের হামলায় নৃসংশ ভাবে হত্যার শিকার । পুলিশ মনোয়ারা বেগম (৫০) নামের এফআইআরভূক্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে। জেলার সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের ভোলাপাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসীরা নৃসংশ ভাবে এই হত্যা কান্ডের ঘটনাটি ঘটিয়েছে ।

পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, গত- ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ রাত সাড়ে ১১ নিহতের বাড়ীর উঠােনে উৎপেতে থাকা দূবৃত্ত সন্ত্রাসী আজিজুল হক পুত্র ওমর ফারুক, জোনায়েদ, মাসুদ সহ ১০/১৫ জন রবিউল ইসলাম কে ধারালো অস্ত্র দিয় এলোপাতারী ভাবে কিপিয়ে মারাত্তক জখম করে । মাথায় প্রচন্ড আঘাত লাগে মাথার মগজ বের হয়ে আসে । এ সময় আরো আহত হয় চম্পা বেগম ও নিহতের মা আমেনা বেগম ।

গুরুতর আহত রবিউলকে প্রথমে পঞ্চগড় সদর হাসপাতাল থেকে রেফাড করলে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । গত-১৬ সেপ্টেম্বর আহত রবিউল রংপুর হাসপাতালে মারা যায় । ওই দিনই নিহত রবিউল ইসলামের বাবা সামসুল হক বাদী হয়ে পঞ্চগড় সদর থানায় মামলা দায়ের করেন ।

রবিউল দির্ঘ ১০ বছর থেকে তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুরে গালামালের দোকান করতেন । সে ভজনপুর এলাকায় বিয়েশাদী করে বর্তমানে সে ২ বছর বয়সের এক পুত্র সন্তানের জনক । রবিউল তার পরিবারের বাবা মা ভাই বোন স্ত্রী পুত্রের এক মাত্র উপার্যন খন ব্যক্তি । এবার ঈদে পরিবার নিয়ে বাবা মায়ের সাথে ভজনপুর থেকে ভোলাপাড়া গ্রামে ঈদ করতে আসেন । রবিউলকে হারিয়ে তার পরিবারে চলছে শোকের মাতম । ময়না তদন্ত শেষে শনিবার রাত ১০ টায় নিহতকে দাফন করা হয়।

পঞ্চগড় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এক জন আটকের কথা জানান । তিনি আরো জানান, অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

Spread the love