শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা সেবার ব্যয় কমাতে হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘সাধারণ মানুষের পক্ষে ব্যয়বহুল চিকিৎসা গ্রহণ করা সম্ভব হয় না। তাই বেসরকারি পর্যায়ে সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা সেবার ব্যয় কমাতে হবে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে রাজধানীর মিরপুরে হার্ট ফাউন্ডেশনে এক সেমিনারে তিনি এ মন্তব্য করেন। ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এ সেমিনারের আয়োজন করে।

তিনি বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলোর উদ্দেশে সরকারি পর্যায়ে দেশের সব মানুষের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয় না। তবে সিমিত সম্পদের মধ্যেও সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশে জেলা পর্যায়ে হৃদরোগ চিকিৎসায় কোনো উন্নত ব্যবস্থা নেই। তাই বেসরকারি উদ্যোগে বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ে বিশেষায়িত হাসপাতাল করার অনুরোধ জানাই। তবে অবশ্যই মান বজায় রাখতে হবে।’

জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) আব্দুল মালিকের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি ড. এন পারানিথারান।

সেমিনারে বক্তারা জানান, বিশ্বে প্রতি বছর ১ কোটি ৭৫ লাখ মানুষ হৃদরোগে মারা যান। ধারণা করা হচ্ছে, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে ২০৩০ সালের মধ্যে বছরে ২ কোটি ৩০ লাখ মানুষ হৃদরোগে মারা যাবেন।

পরে রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে যক্ষা নিয়ন্ত্রণে তামাকের ব্যবহার কমানোর দাবিতে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সেখানে জানানো হয়, বাংলাদেশে ১৫ বছরের বেশি বয়সি জনগোষ্ঠীর মধ্যে ৪৩ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ কোনো না কোনোভাবে তামাক ব্যবহার করেন। প্রতিবছর প্রায় ৫৭ হাজার মানুষ তামাক ব্যবহারের কারণে মারা যান।

বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত প্রোগ্রেসিভ ডক্টরস ইউনিয়নের (পিডিইউ) উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ‘স্বল্পমূল্যে স্বাস্থ্যসেবা : প্রেক্ষাপট ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক সেমিনারে অংশ নেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

সেখানে বলা হয়, রোগ হলে সব মানুষেরই চিকিৎসা প্রয়োজন। জটিল রোগ ধনী, দরিদ্র সব মানুষেরই হতে পারে। কিন্তু স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা না গেলে স্বল্প আয়ের মানুষ যথাযথ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হবেন। এতে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শহিদুল্লাহ শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

Spread the love