বুধবার ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ১৮ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পাবনা আসছেন মুনমুন রিয়া ও রাইমা

Moon-Moonপাবনার গোপালপুরে সুচিত্রা সেনের পৈতৃক ভিটা দখলমুক্ত করা ও সেই বাড়িতে মায়ের নামে সংগ্রহশালা নির্মাণের উদ্যোগ নেয়ায় বাংলাদেশ সরকারকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মুনমুন সেন। দুই মেয়ে রিয়া ও রাইমা সেনকে নিয়ে বাংলাদেশে আসবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। কলকাতার দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন এ খবর প্রকাশ করেছে। সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, পাবনার সংগ্রহশালায় সুচিত্রা সেনের কিছু ছবি এবং ব্যবহৃত সামগ্রী দেয়ার ইচ্ছা আছে মুনমুনের।
খবরে আরও বলা হয়েছে, সুচিত্রা সেনের মৃত্যুর পর বাংলাদেশের সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর কলকাতায় মুনমুন সেনকে তার মায়ের পৈতৃক বাড়ি দখলমুক্ত করার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। ঢাকায় ফিরে নূর সুচিত্রা সেনের বাড়িতে সংগ্রহশালা নির্মাণের ঘোষণাও দেন।
সংবাদ প্রতিদিন আরও বলছে, সংগ্রহশালার নির্মাণ কাজ শুরুর আগেই পাবনা যাওয়ার চেষ্টা করবেন মুনমুন। দুই মেয়ে অভিনয়ের ফাঁকে ফুরসত পেলেই তাদের নিয়ে মায়ের ভিটা দেখতে যাবেন তিনি।
১৯৩১ সালের ৬ এপ্রিল জন্ম নেয়া সুচিত্রার শৈশব-কৈশোর কাটে পাবনা শহরের গোপালপুর মহল্লার হেমসাগর লেনের বাড়িটিতে।
১৯৮৭ সালে তৎকালীন জেলা প্রশাসক সাইদুর রহমান বাড়িটি বার্ষিক চুক্তি ভিত্তিতে ইমাম গাযযালী ট্রাস্টকে ইজারা দেন। এ ট্রাস্টের সাথে জড়িত রয়েছেন জামায়াত নেতা ও যুদ্ধাপরাধের মামলায় বিচারাধীন আব্দুস সুবহান।
বাড়িটি দখলমুক্ত করতে আন্দোলন ও আইনি লড়াই করেন বিভিন্ন ব্যক্তি ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন।
২০১১ সালে একটি রিটের পরিপ্রেক্ষিতে বাড়িটি সরকারের দখলে নেয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। কিন্তু আপিল বিভাগ হাইকোর্টের সে আদেশের উপর স্থগিতাদেশ প্রদান করে। চলতি বছর ৪ মে দখলদারদের করা লিভ টু আপিল খারিজ করে দেন উচ্চ আদালত। ১০ জুলাই জেলা প্রশাসকের কাছে বাড়িটি হস্তান্তর করে ইমাম গাযযালী ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ।