শনিবার ১ অক্টোবর ২০২২ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনি শ্রমিকদের কর্মবিরতি অব্যাহত।

দিনাজপুর প্রতিনিধি: পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনিতে পাঁচ দফা দাবিতে আজ বুধবার ৩য় দিন সকাল থেকে অনিদৃষ্টকালের কর্মবিরতির পালন করছে খনি শ্রমিকরা। শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারনে খনি থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধা সাড়ে ৫টা থেকে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত আলোচনায় বসলেও কোন সুরাহা হয়নি। ক্ষতির পরিমান দাড়িয়েছে প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ টাকা।

গত মঙ্গলবার সন্ধা সাড়ে ৫টা খনিতে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাহেনুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও খনি শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের উপদেষ্টা রেজাউল করিম, মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ নুরুজ্জামান চৌধুরি, শিলাখনির জেনারেল ম্যানেজার আব্দুল হান্নান, ফজলুল হক, ডিজিএম আব্দুল মান্নান, ম্যানেজার সারোয়ার হামিদ দীপু ,শ্রমিক ঠিকাদার প্রতিষ্টান ব্লু ষ্টারের লিয়াজু অফিসার উজ্জল গুপ্ত,ু শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি খায়রুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম সহ বৈঠকে বসেন। ২ ঘন্টা ব্যাপি আলোচনায় কো্ন সুরাহা হয়নি। শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি খায়রুল ইসলাম বলেন, তাদের দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত কোন শ্রমিক কাজে যোগ দেবেনা।

পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনির শ্রমিকেরা বিভিন্ন দাবী আদায়ের জন্য দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে। খনি কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন সময়ে তাদের দাবী মেনে নিলেও তা কোন কার্যকর হয়নি। শ্রমিকরা আবারও খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে একটি স্বারকলিপি প্রদানের মাধ্যমে ৫দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে গত সোমবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি পালন করে আসছে। তাদের দাবীগুলো ৩য় পক্ষের টেন্ডার প্রথা বাতিল করে সরাসরি কোম্পানির অধিনে চাকুরি প্রদান, ডিপ্লোমাধারী শ্রমিকদের চাকুরি নিয়মিতকরন, খনি থেকে বহিস্কৃত ৯ শ্রমিককে চাকরীতে পূর্নবহাল, কর্মচারীদের ২০ ভাগ মহার্ঘ ভাতা প্রদান এবং অহেতুক শ্রমিক ছাটাই বন্ধ করনের দাবী করেন। খনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, শ্রমিকরা পাথর উত্তোলন না করায় প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকা ক্ষতি হচ্ছে। এ তিন দিনে ক্ষতির পরিমান দাড়িয়েছে প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ টাকা।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email