রবিবার ১৪ অগাস্ট ২০২২ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে গৃহবধুকে শারিরীক নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

একরামুল হক বেলাল,পার্বতীপুর, দিনাজপুর,থেকে : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে তানজিলা খাতুন নুরী (২৩) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শারিরিক নির্যাতন করে হত্যা করার মৃতের পিতার অভিযোগে স্বামী মোছাব্বির হোসেন মুনকে পুলিশ আটক করেছে।

তানজিলা খাতুন নুরী পার্বতীপুর পৌর এলাকার জাহাঙ্গীর নগর মহল্লার মোছাব্বির হোসেন মুনের স্ত্রী এবং উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের হাবড়া কুসুলপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের কন্যা।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় পার্বতীপুর পৌরশহরের জাহাঙ্গীর নগর ভাড়া বাড়ী থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে।

স্বামী মোছাব্বির হোসেন মুনের দাবী পারিবারিক কলহের জের ধরে তানজিলা খাতুন নুরী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তবে শারিকিভাবে নির্যাতন চালিয়ে হত্যার পর লাশ ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে হত্যাকারীরা মিথ্যা প্রচার চালাচ্ছে এমন অভিযোগ করেছেন নুরীর বাবা নুরুল ইসলাম।

নুরুল ইসলাম আরও জানায়, তানজিলা খাতুন নুরী (২৩) এর সাথে পার্বতীপুর পৌর এলাকার জাহাঙ্গীর নগর মহল্লার মৃত আনোয়ার হোসেনের পুত্র মোছাব্বির হোসেন মুন (২৬) এর ২০১০ সালে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পরে মুন তার মা রাবেয়া বাশরী ও ভাই আরমান সংসারের সামান্য বিষয় নিয়ে নুরীকে মারপিটসহ শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো। এসব কারনে মুন তার স্ত্রী নুরীকে নিয়ে একই মহল্লার তার চাচা মৃত নজরুল ইসলামের বাড়ী ভাড়া নিয়ে বসবাস করতো। গত রোববার সকাল ১০টায় মুন তার মা ও ভাইয়ের প্ররোচনায় নুরীর সাথে ঝগড়া বিবাদ করে। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় ফোনে তার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পেয়ে মুনের ভাড়াটিয়া বাড়ীতে গিয়ে নুরীর মৃত দেহ দেখতে পায়। এ সময় তাকে জানানো হয়, নুরী ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ব্যাপারে পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মোঃ মনজুরুল আলম জানান, মৃত নুরীর পিতা নুরুল ইসলামের মোখিক অভিযোগের ভিত্তিতে তার স্বামী মোছাব্বির হোসেন মুনকে আটক করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ এবং ময়না তদন্তের রিপোর্টের ভিত্ত্বিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email