রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ১লা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় মামলা। গ্রেফতার ১৯

মনজুরুল আলম, ষ্টাফ রিপোর্টার, পার্বতীপুরঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে আদিবাসীদের ছোড়া তীর বিদ্ধ হয়ে হতহতের ঘটনাস্থলে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প বসানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত সোহাগের চাচা মাহামুদুল হক বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা করেছে। পুলিশ হত্যা মামলার আসামী ১৯ জন আদিবাসীকে গ্রেফতার পূর্বক আজ রোববার সকালে আদালতে পাঠিয়েছে। অপর দিকে, আজ ভোরে ময়না তদন্ত শেষে নিহত সোহাগের লাশ গ্রামে পৌছলে গোটা এলাকায় শোকে ছেয়ে যায়। পরে সকাল ১০টায় জানাযা শেষে শালাইপুর অসুকোট গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহামুদুল আলম জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

উলে­খ্য, উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের শালাইপুর গ্রামের বাসিন্দা জহুরুল হকের সাথে পার্শ্ববতী হাবিবপুর চিড়াকুঠা গ্রামের আদিবাসীদের সাথে জমির মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার কিছুদিন আগে বিরোধের মিমাংসাও হয়। গতকাল শনিবার সকালে জহুরুল ইসলাম ও তার পুত্র সোহাগ কে নিয়ে ইরি বোরো বীজতলায় শ্যালো মেশিন দিয়ে পানি দিতে গেলে পার্শ্ববর্তী আদিবাসী পাড়ার আদিবাসীরা তীর, ধনুক নিয়ে হামলা চালালে ঘটনাস্থলেই নির্মম ভাবে সোহাগ (২৬) নিহত হয় ও তার পিতা জহুরুলের মাথায় লেগে গুরুতর আহত হয়।

Spread the love