শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে নদীতে এখন ধান চাষাবাদ

মোঃ আব্দুললাহ আল মামুন পার্বতীপুর,(দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার

মধ্যপাড়ার শাখা কাল নদীটি এখন আবাদি

জমিতে পরিনত হয়েছে। এক সময় শাখা কাল

নদী দিয়ে খরস্রোত বইতো। বর্তমানে বছরের

অধিকাংশ সময় শুকনো আর ধুধু বালুচরে

পরিনত হয়ে থাকে। বড় কাল নদীতে এখন

সারা বছর হচ্ছে চাষাবাদ। নদীটিতে পানি না

থাকার কারনে শ্যালো মেশিন দিয়ে ভূ-গর্ভ

থেকে পানি উত্তলন করতে হচ্ছে। হারিয়ে গেছে

স্থানীয় জেলেদের জীবন-যাত্রা, দেখা দিয়েছে

দেশী মাছের অভাব। এক সময় এই শাখা কাল

নদীটি ছিলো মানুষের জীবিকা নির্বাহের এক

মাত্র মাধ্যম। এই নদীর পানি দিয়ে কৃষরা

তাদের চাষাবাদ করতো আর মাছ শিকার

করে জীবিকা নির্বাহ করতো অর্ধশতাধিক

জেলে পরিবার। আর এই নদীর মাছ দিয়ে

স্থানীয় জেলেরা অত্র এলাকার দেশী মাছের

চাহিদা পূরণ করতো।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এলাকার বাদশা

মিয়া ও সেলিমসহ কয়েকজন জেলের সাথে

কথা বললে তারা বলেন, বড় কাল নদীতে

এখন পানি না থাকায় অনাহারে দিনাতিপাত

করতে হচ্ছে এখন জেলেদের। অত্র অঞ্চলে

হারিয়ে যাচ্ছে দেশী প্রজাতির মাছ যার কারনে

সাধারণ মানুষের দেহে সঠিক ভিটামিনের

চাহিদা পূরণ হচ্ছেনা। স্থানীয় কৃষকরা উক্ত

নদীতে একটি রাবার ড্যাম স্থাপন করে পানি

আটকে রেখে আবাদ করার সহযোগীতা করতে

সরকারের প্রতি জোর দাবী তুলেছে। পানি

উন্নয়ন বোর্ড দীর্ঘ দিন দরে ড্রেজিং না করার

কারনে এই নদীর যৌবনতা হারাতে বসেছে।

 

 

 

Spread the love