সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে প্রেমিক-প্রেমিকাকে আটক

পার্বতীপুর(দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ পার্বতীপুরে প্রেমিক-প্রেমিকা ঘর বাধার আশায় পালিয়ে গিয়ে এখন শ্রীঘরে ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে প্রেমিক সোহাগ আলম ও প্রেমিকা জোতি রানী দাসকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।
জানা যায়, পার্বতীপুর শহরের মজিবাবাদ মহল্লার ওজিত রায় দাস এর কন্যা পার্বতীপুর ডিগ্রী কলেজের বি,এস,এস প্রথম বর্ষের ছাত্রী জোতি রানী দাস (২০) পার্বতীপুর আর্দশ ডিগ্রী কলেজের ছাত্র জাহানাবাদ দাঁড়ারপাড় গ্রামের তৈয়ব আলীর পুত্র সোহাগ আলম(২২) এর সংগে প্রেম ভালবাসা হয়। দীর্ঘ দিনের প্রেম ভালবাসার পরে গত ৫ এপ্রিল সাবালিকা জোতি রানী দাস বাবার বাড়ী ছেড়ে ঠাকুরগাঁও আদালতে গিয়ে নোটারী পাবলিক এ এ্যাডঃ মোবারক হোসেনের কাছে ৬৭৩/১৫ এফিডেভিডের মাধ্যমে সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে জান্নাতুল ফেরদৌস জোতি নাম রেখে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেন। একই নোটারী পাবলিক এ ৬৭৪/১৫ এফিডেভিড মুলে জান্নাতুল ফেরদৌস জোতি প্রেমিক সোহাগ আলমকে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করে এবং কাজী অফিসে গিয়ে বিয়ে রেজিস্টার করে নেয়।
এ ঘটনায় ওজিত রায় বাদী হয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে স্বামী সোহাগ আলম ও স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। রাতেই সোহাগ আলম ও জান্নাতুল ফেরদৌসের কোট এফিডেভিট ও বিয়ের কাবিন নামা পুলিশকে হস্তান্তর করেছে।

Spread the love