শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে প্রভাষক বরখাস্ত

পার্বতীপুরের দরগাপাড়া ফাজিল মাদ্রসার ৫ম শ্রেনীর  ছাত্রীকে ছুটির পর মাদ্রাসার একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ ওঠায় ম্যানেজিং কমিটি ওবায়দুল হক নামের এক প্রভাষককে বরখাস্ত করেছে। মামলাসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে ছাত্র ছাত্রী ও এলাকাবাসী মিছিল মিটিং ও বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে। ম্যানেজিং কমিটি ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষন করছেন বলে জানা গেছে। অনুসন্ধানে ছাত্রীর পিতা জানান, মাদ্রাসার আরবি বিভাগের প্রভাষক ওবায়দুল হক তার মেয়েকে পরীক্ষার গাইড দেয়ার কথা বলে গত ৫ মার্চ ছুটির পর মাদ্রাসার একটি কক্ষে নিয়ে ফুসলিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। মেয়েটি লজ্জায় তার মা বাবাকে বিষয়টি না জানিয়ে গোপন রাখে। এক পর্যায়ে সে মাদ্রাসায় যাতায়াত বন্ধ করে দেয়। পারিবারিকভাবে মাদ্রাসায় না যাওয়ার কারন জানতে চাইলে মেয়েটি গতকাল (বুধবার) সকালে তার বাবা মাকে সব ঘটনা খুলে বলে। দুঃখ ক্ষোভে মাদ্রাসা ছাত্রীর পিতা বিষয়টি এলাকার লোকজনকে জানালে ওইদিন বিকেলে এলাকাবাসী ও মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রীরা অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। বিষয়টি নিয়ে প্রিন্সিপাল ইয়াসিন আলীর সাথে কথা হলে জানান- ওবায়দুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ তদন্তে  প্রতিষ্ঠানের সভাপতি তরিকুল ইসলামকে প্রধান করে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এবং ৫ দিনের মধ্যে রির্পোট প্রদানের নির্দেশ দিয়েছে। ইতোমধ্যে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্তও করা হয়েছে।