রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে মাদ্রাসা ছাত্র সোহাগ হত্যার রহস্যজট খুলতে শুরু, শিক্ষক সহ গ্রেফতার ৩।

মনজুরুল আলম, ষ্টাফ রিপোর্টার, পার্বতীপুর : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে চাঞ্চল্যকর মাদ্রাসা ছাত্র সোহাগ হত্যা মামলার রহস্যজট খুলতে শুরু হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে মাদ্রাসা থেকে পালানোর সময় এলাকাবাসী ২ ছাত্রকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে নীলফামারী ডোমার তেলিপাড়ার আবুল হোসেনের পুত্র শাহজাহান আলী (১৬) ও একই গ্রামের মৃত রফিকুলের পুত্র মশিউর রহমান (১৭)। তারা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে থানা পুলিশ ও আদালতে ম্যাজিষ্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দিয়েছে। পরে আদালত তাদের দিনাজপুর জেলহাজতে পাঠায়।

এর আগে গত সোমবার রাতে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই মাদ্রাসা থেকে নিহত সোহাগের আরো দুই সহপাঠি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানাধীন লক্ষ্মনপুর চড়কপাড়ার আইয়ুব আলীর পুত্র ওমর ফারুক (১৭) ও বিমানবন্দর পশ্চিমপাড়ার মৃত ময়েন উদ্দিনের পুত্র মোস্তাফিজুর রহমান (১৬) আটক করে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের পর গতকাল বুধবার সকালে তাদের ছেড়ে দেয়। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার ও মাদ্রাসা শিক এমদাদুল হক রিমন কে গ্রেফতার করে। ওই শিককে জেল হাজতে পাঠিয়ে পুলিশ রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে আবেদন করেছে।

পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল আলম জানান, তুচ্ছ কথাবার্তা নিয়ে ুদ্ধ হয়ে তারা এ হত্যাকান্ড ঘটায়। উল্লেখ্য, গত রোববার সকালে পার্বতীপুুরের সুন্দরপীর হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র সোহানুর রহমান সোহাগ (১৬) এর লাশ মাদ্রাসার পিছনের শুকনো ডোবা থেকে পুলিশ উদ্ধার করে।

 

Spread the love